ঢাকা ১২:৩১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নাসিক ১৭টি পশুর হাটের ইজারা সম্পন্ন, বাতিল ১টি 

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:৫৬:০৩ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ জুন ২০২৩ ৯৪ বার পড়া হয়েছে

????????????????????????????????????

নিউজ ডেস্ক।।

 

 

মুসলিম সম্প্রদায়ের বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন(নাসিক) এবার মোট ১৭টি অস্থায়ী পশুর হাটের ইজারা দিয়েছে।

তবে নাসিক ৩ নং ওয়ার্ডের মাদানী নগর ব্রীজ সংলগ্ন আল আমিন গার্মেন্টস এর পশ্চিম পার্শ্বের বালুর মাঠের দরপত্র আহবান করেও তা বাতিল করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

এবার নাসিক পশুর হাটের দরপত্র আহ্বানে সর্বোচ্চ ৩৬ লাখ টাকা দরপত্রে ২০ নং ওয়ার্ড সোনাকান্দা মাঠের পশ্চিম পাশের খালি জায়গায় হাটের ইজারা পেয়েছেন সাগর হাসান এবং সর্বনিম্ন ১ লাখ ৬০ হাজার টাকায় ২৪ নং ওয়ার্ডের কাইতাখালিতে গোলন্দাজ সাহেবের খালি জায়গা হাটের ইজারা পেয়েছেন আব্দুর রশিদ।

পূর্বের ন্যায় এবারও কোনো ব্যাস্ততম জায়গা বা শহরের ভিতরে কোন পশুর হাটের দরপত্র আহবান করা হয়নি।

নাসিক সিদ্ধিরগঞ্জে ১০ টি ও বন্দর উপজেলায় ৮ টি হাটের অনুমতি দেয় নাসিক। সূত্রমতে জানা গেছে, ৫ শতাংশ হারে হাসলি আদায়ের শর্তে পশু হাটের ইজারা দেয়া হয়েছে।

১ নং ওয়ার্ড সি আই খোলা বালুর মাঠে সর্বোচ্চ ৪ লাখ টাকায় ইজারা পেয়েছে সালাম। ৩ ন ওয়ার্ড সানারপাড় লিথি গার্মেন্টস সংলগ্ন মৌলভী মো. ফজলুর রহমান এর খালি জায়গা আক্তার হোসেন মোল্লা সর্বোচ্চ ১১ লাখ ১০ হাজার টাকায় ইজারা লাভ করেন। ৪ নং ওয়ার্ড তাজ জুট বেলিং কোং লিঃ এর পশ্চিম পাশের খালি মাঠ সর্বোচ্চ ৩ লাখ ৭৫ হাজার টাকায় ইজারা পেয়েছেন শফিকুল ইসলাম। ৪ নং ওয়ার্ড টাইগার ওয়ার রি-রোলিং মিলস এর মাঠ এলাকায় সর্বোচ্চ ১৩ লাখ ৩০ হাজার ১০০ টাকায় ইজারা পেছেন আব্দুল কাইয়ুম, ৫ নং ওয়ার্ড ওমরপুরস্থ সিদ্ধিরগঞ্জ বাজার রোডের পার্শ্বে জালাল উদ্দিন সাহেবের বালুর মাঠ সর্বোচ্চ ৪ লাখ ৭৭ হাজার টাকায় ইজারা পেয়েছে আনিসুর রহমান, ৭ নং ওয়ার্ড নাভানা সিটির বালুর মাঠ সর্বোচ্চ ২৫ লাখ ৮৭ হাজার ৫০০ টাকায় ইজারা পেয়েছে রবিন হোসেন, ৮ নং ওয়ার্ড গোদনাইল ইব্রাহীম টেক্সটাইল মিলস এর খালি মাঠ (রেল লাইনের পশ্চিম অংশ) সর্বোচ্চ ২৩ লাখ ৫৩ হাজার ২০০ টাকায় পেয়েছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব শাহ আলম। ৯ নং ওয়ার্ডের জালকুড়ি উত্তর পাড়া দশ পাইপ সংলগ্ন মোতালিব বেপারীর বালুর মাঠ সর্বোচ্চ ৩ লাখ ২০ হাজার টাকায় ইজারা পেয়েছেন সালাহ উদ্দিন। ৯ নং ওয়ার্ডের ওয়াপদা রোডের উত্তর পার্শ্বে হাসনাত হিরত আলী মসজিদ সংলগ্ন বালুর মাঠ সর্বোচ্চ ৬ লাখ টাকায় ইজারা পেয়েছে শামীম আহমেদ জোসেব।

এছাড়াও নাসিক কদম রসুল ১৯ নং ওয়ার্ডের সামিট পাওয়ার প্ল্যান্টের এর পেছনে খালি জায়গায় অস্থায়ী পশুর হাট স্থানীয় কাউন্সিলর পুত্র আ. কাদের মাহমুদ চৌধুরী সর্বোচ্চ ৬ লাখ ১১১ টাকায় ইজারা পেয়েছেন। ২০ নং ওয়ার্ড সোনাকান্দা মাঠের পশ্চিম পাশের খালি জায়গায় সর্বোচ্চ ৩৬ লাখ টাকায় ইজারা পেয়েছেন সাগর। ২১ নং ওয়ার্ডের স্কুল ঘাট সংলগ্ন বালুর মাঠ সর্বোচ্চ ১৪ লাখ ৪০ হাজার টাকায় ইজারা পেয়েছেন জাতীয় পার্টি নেতা শাহ আলম। ২৩ নং ওয়ার্ড পূর্বপাড়া লতিফ হাজির মোড় সংলগ্ন ব্যক্তি মালিকানাধীন খালি জায়গা সর্বোচ্চ ২ লাখ ৫ হাজার টাকায় ইজারা পেয়েছে শফিকুল ইসলাম। ২৩ নং ওয়ার্ডের আলী আহম্মদ চুনকা সড়কের কাবিলের মোড় সংলগ্ন কাশেম জামাল সাহেবের খালি জায়গা পেয়েছেন জাহাঙ্গীর আলম সর্বোচ ৫ লাখ টাকায় ইজারা পেয়েছেন। ২৪ নং ওয়ার্ড কাইতাখালি গোলন্দাজ সাহেবের খালি জায়গা সর্বোচ্চ ১ লাখ ৬০ হাজারে ইজারা পেয়েছেন আবদুর রশিদ। ২৪ নং ওয়ার্ডের নবীগঞ্জ গুদাড়াঘাট সংলগ্ন খালি জায়গা (খেলার মাঠ ব্যতিত) সর্বোচ্চ ১১ লাখ ২০ হাজার টাকায় ইজারা পেয়েছে শফি উল্লাহ। এছাড়াও ২৫ নং ওয়ার্ডের খেয়াঘাট সংলগ্ন খালি জায়গা সর্বোচ্চ ২০ লাখ টাকায় ইজারা পেয়েছেন আবদুল্লাহ আল মামুন।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

নাসিক ১৭টি পশুর হাটের ইজারা সম্পন্ন, বাতিল ১টি 

আপডেট সময় : ১০:৫৬:০৩ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ জুন ২০২৩

নিউজ ডেস্ক।।

 

 

মুসলিম সম্প্রদায়ের বৃহত্তম ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন(নাসিক) এবার মোট ১৭টি অস্থায়ী পশুর হাটের ইজারা দিয়েছে।

তবে নাসিক ৩ নং ওয়ার্ডের মাদানী নগর ব্রীজ সংলগ্ন আল আমিন গার্মেন্টস এর পশ্চিম পার্শ্বের বালুর মাঠের দরপত্র আহবান করেও তা বাতিল করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

এবার নাসিক পশুর হাটের দরপত্র আহ্বানে সর্বোচ্চ ৩৬ লাখ টাকা দরপত্রে ২০ নং ওয়ার্ড সোনাকান্দা মাঠের পশ্চিম পাশের খালি জায়গায় হাটের ইজারা পেয়েছেন সাগর হাসান এবং সর্বনিম্ন ১ লাখ ৬০ হাজার টাকায় ২৪ নং ওয়ার্ডের কাইতাখালিতে গোলন্দাজ সাহেবের খালি জায়গা হাটের ইজারা পেয়েছেন আব্দুর রশিদ।

পূর্বের ন্যায় এবারও কোনো ব্যাস্ততম জায়গা বা শহরের ভিতরে কোন পশুর হাটের দরপত্র আহবান করা হয়নি।

নাসিক সিদ্ধিরগঞ্জে ১০ টি ও বন্দর উপজেলায় ৮ টি হাটের অনুমতি দেয় নাসিক। সূত্রমতে জানা গেছে, ৫ শতাংশ হারে হাসলি আদায়ের শর্তে পশু হাটের ইজারা দেয়া হয়েছে।

১ নং ওয়ার্ড সি আই খোলা বালুর মাঠে সর্বোচ্চ ৪ লাখ টাকায় ইজারা পেয়েছে সালাম। ৩ ন ওয়ার্ড সানারপাড় লিথি গার্মেন্টস সংলগ্ন মৌলভী মো. ফজলুর রহমান এর খালি জায়গা আক্তার হোসেন মোল্লা সর্বোচ্চ ১১ লাখ ১০ হাজার টাকায় ইজারা লাভ করেন। ৪ নং ওয়ার্ড তাজ জুট বেলিং কোং লিঃ এর পশ্চিম পাশের খালি মাঠ সর্বোচ্চ ৩ লাখ ৭৫ হাজার টাকায় ইজারা পেয়েছেন শফিকুল ইসলাম। ৪ নং ওয়ার্ড টাইগার ওয়ার রি-রোলিং মিলস এর মাঠ এলাকায় সর্বোচ্চ ১৩ লাখ ৩০ হাজার ১০০ টাকায় ইজারা পেছেন আব্দুল কাইয়ুম, ৫ নং ওয়ার্ড ওমরপুরস্থ সিদ্ধিরগঞ্জ বাজার রোডের পার্শ্বে জালাল উদ্দিন সাহেবের বালুর মাঠ সর্বোচ্চ ৪ লাখ ৭৭ হাজার টাকায় ইজারা পেয়েছে আনিসুর রহমান, ৭ নং ওয়ার্ড নাভানা সিটির বালুর মাঠ সর্বোচ্চ ২৫ লাখ ৮৭ হাজার ৫০০ টাকায় ইজারা পেয়েছে রবিন হোসেন, ৮ নং ওয়ার্ড গোদনাইল ইব্রাহীম টেক্সটাইল মিলস এর খালি মাঠ (রেল লাইনের পশ্চিম অংশ) সর্বোচ্চ ২৩ লাখ ৫৩ হাজার ২০০ টাকায় পেয়েছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব শাহ আলম। ৯ নং ওয়ার্ডের জালকুড়ি উত্তর পাড়া দশ পাইপ সংলগ্ন মোতালিব বেপারীর বালুর মাঠ সর্বোচ্চ ৩ লাখ ২০ হাজার টাকায় ইজারা পেয়েছেন সালাহ উদ্দিন। ৯ নং ওয়ার্ডের ওয়াপদা রোডের উত্তর পার্শ্বে হাসনাত হিরত আলী মসজিদ সংলগ্ন বালুর মাঠ সর্বোচ্চ ৬ লাখ টাকায় ইজারা পেয়েছে শামীম আহমেদ জোসেব।

এছাড়াও নাসিক কদম রসুল ১৯ নং ওয়ার্ডের সামিট পাওয়ার প্ল্যান্টের এর পেছনে খালি জায়গায় অস্থায়ী পশুর হাট স্থানীয় কাউন্সিলর পুত্র আ. কাদের মাহমুদ চৌধুরী সর্বোচ্চ ৬ লাখ ১১১ টাকায় ইজারা পেয়েছেন। ২০ নং ওয়ার্ড সোনাকান্দা মাঠের পশ্চিম পাশের খালি জায়গায় সর্বোচ্চ ৩৬ লাখ টাকায় ইজারা পেয়েছেন সাগর। ২১ নং ওয়ার্ডের স্কুল ঘাট সংলগ্ন বালুর মাঠ সর্বোচ্চ ১৪ লাখ ৪০ হাজার টাকায় ইজারা পেয়েছেন জাতীয় পার্টি নেতা শাহ আলম। ২৩ নং ওয়ার্ড পূর্বপাড়া লতিফ হাজির মোড় সংলগ্ন ব্যক্তি মালিকানাধীন খালি জায়গা সর্বোচ্চ ২ লাখ ৫ হাজার টাকায় ইজারা পেয়েছে শফিকুল ইসলাম। ২৩ নং ওয়ার্ডের আলী আহম্মদ চুনকা সড়কের কাবিলের মোড় সংলগ্ন কাশেম জামাল সাহেবের খালি জায়গা পেয়েছেন জাহাঙ্গীর আলম সর্বোচ ৫ লাখ টাকায় ইজারা পেয়েছেন। ২৪ নং ওয়ার্ড কাইতাখালি গোলন্দাজ সাহেবের খালি জায়গা সর্বোচ্চ ১ লাখ ৬০ হাজারে ইজারা পেয়েছেন আবদুর রশিদ। ২৪ নং ওয়ার্ডের নবীগঞ্জ গুদাড়াঘাট সংলগ্ন খালি জায়গা (খেলার মাঠ ব্যতিত) সর্বোচ্চ ১১ লাখ ২০ হাজার টাকায় ইজারা পেয়েছে শফি উল্লাহ। এছাড়াও ২৫ নং ওয়ার্ডের খেয়াঘাট সংলগ্ন খালি জায়গা সর্বোচ্চ ২০ লাখ টাকায় ইজারা পেয়েছেন আবদুল্লাহ আল মামুন।