ঢাকা ১২:৫৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যে নারীর কারণে ছাত্রলীগ নেতাদের পেটালেন এডিসি হারুন!

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:০০:৪৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ২৭৮ বার পড়া হয়েছে
ত্রিভুজ প্রেমের বলি হলেন কেন্দ্রীয় দুই ছাত্রলীগ নেতা!
বিশেষ প্রতিবেদক।।
রাজধানী ঢাকার শাহবাগ জাদুঘরের সামনে চুড়ির দোকানে সিভিল ড্রেসে রমনা বিভাগের সাবেক এডিসি হারুণ ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার তারই এক্স স্ত্রী সানজিদা আফরিনকে চুড়ি কিনে পরিয়ে দিচ্ছিলেন।এখন দেখতে পান তার বর্তমান স্বামী।
জানা গেছে, এই নারী পুলিশ কর্মকর্তার সাথে পরকীয়া সম্পর্ক পুলিশের বির্তকিত এডিসি হারুনের। অবাক করা তথ্য হচ্ছে এই এডিসি সানজিদা আবার এডিসি হারুনের সাবেক স্ত্রী।
সানজিদা আফরিন এবং হারুনকে হাতেনাতে ধরেন সানজিদার বর্তমান স্বামী ঢাকার অদূরে নারায়ণগঞ্জ জেলার এডিসি(শিক্ষা) দায়িত্ব হতে সদ্য বদলী হয়ে রাষ্ট্রপতির এপিএস ৩১ তম বিসিএসের অ্যাডমিন ক্যাডারের আজিজুল হক মামুন। এ ঘটনার সময় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের দুই নেতা ঘটনার প্রকৃত কারন ও মিমাংসার জন্য  সানজিদার বর্তমান স্বামীর সাথে উপস্থিত হন তারা ।
এনিয়ে এক পর্যায়ে এডিসি হারুনের সাথে সানজিদার বর্তমান স্বামী আজিজুল হক মামুন তর্কবিতর্কে জড়িয়ে পরে। এরপর শাহবাগ থানায় গিয়ে ওই ছাত্রলীগ নেতাদের ফোন করে ডেকে নিয়ে আসে হারুন। এরপর চোয়ালের ডায়াগ্রাম বদলে দেয় নানান ধরনের অমানুষিক সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ও নির্যাতন চালায় এডিসি হারুন।
এডিসি হারুনও সাবেক পদধারী ছাত্রলীগ নেতাকে থানায় আটকে এমন নির্যাতনের সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন হারুনের এক্স স্ত্রী ও পরকীয়া  প্রেমিকা সানজিদা।
মূলত এডিসি হারুনের পরকীয়ার বলি হলেন ছাত্রলীগের ওই দুই নেতা। পুলিশ যে দ্বন্দে জড়িয়ে পড়েছে,সব কিছুর নেপথ্যে এ নারী পুলিশ কর্মকর্তা সানজিদা আফরিনের ইন্ধনে।
এর আগেও ছাত্রলীগ নেতাদের অ মা নু ষি ক নির্যাতন করার জন্য এডিসি হারুনকে একদিনে দুইবার বদলি করা হয়েছে। বিভিন্ন সময়ে মানুষ পিটিয়ে বিতর্কের জন্ম দেয়া এ হারুন এবার বদলি হয়েছে দাঙ্গা পুলিশে।
অথচ, এই ঘটনার নেপথ্যের নারী পুলিশ কর্মকর্তা সানজিদা এবং তার স্বামী রাষ্ট্রপতির এপিএস’র বিরুদ্ধে এখনো কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।
সূত্র মতে আরো জানা গেছে, ছাত্রাবস্থায় ওই পুলিশ কর্মকর্তা সানজিদাকে বিয়ে করেছিলেন এডিসি হারুন।পরে তা বিচ্ছেদ হয়ে গেলেও আবার সম্পর্ক বাসা বাধে পরকীয়ার মাধ্যমে। তাদের এ পরকীয়া প্রেমলীলা বহুদিন পূর্ব থেকেই। বিয়ের এ তথ্য গোপন করে আর এক বিসিএস ক্যাডারকে বিয়ে করেছেন নারী পুলিশ কর্মকর্তা সানজিদা। তবে এডিসি হারুনের সাথে তার পুরাতন পরকীয়া প্রেমলীলা এখনে বিদ্যমান।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

যে নারীর কারণে ছাত্রলীগ নেতাদের পেটালেন এডিসি হারুন!

আপডেট সময় : ০৪:০০:৪৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২৩
ত্রিভুজ প্রেমের বলি হলেন কেন্দ্রীয় দুই ছাত্রলীগ নেতা!
বিশেষ প্রতিবেদক।।
রাজধানী ঢাকার শাহবাগ জাদুঘরের সামনে চুড়ির দোকানে সিভিল ড্রেসে রমনা বিভাগের সাবেক এডিসি হারুণ ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার তারই এক্স স্ত্রী সানজিদা আফরিনকে চুড়ি কিনে পরিয়ে দিচ্ছিলেন।এখন দেখতে পান তার বর্তমান স্বামী।
জানা গেছে, এই নারী পুলিশ কর্মকর্তার সাথে পরকীয়া সম্পর্ক পুলিশের বির্তকিত এডিসি হারুনের। অবাক করা তথ্য হচ্ছে এই এডিসি সানজিদা আবার এডিসি হারুনের সাবেক স্ত্রী।
সানজিদা আফরিন এবং হারুনকে হাতেনাতে ধরেন সানজিদার বর্তমান স্বামী ঢাকার অদূরে নারায়ণগঞ্জ জেলার এডিসি(শিক্ষা) দায়িত্ব হতে সদ্য বদলী হয়ে রাষ্ট্রপতির এপিএস ৩১ তম বিসিএসের অ্যাডমিন ক্যাডারের আজিজুল হক মামুন। এ ঘটনার সময় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের দুই নেতা ঘটনার প্রকৃত কারন ও মিমাংসার জন্য  সানজিদার বর্তমান স্বামীর সাথে উপস্থিত হন তারা ।
এনিয়ে এক পর্যায়ে এডিসি হারুনের সাথে সানজিদার বর্তমান স্বামী আজিজুল হক মামুন তর্কবিতর্কে জড়িয়ে পরে। এরপর শাহবাগ থানায় গিয়ে ওই ছাত্রলীগ নেতাদের ফোন করে ডেকে নিয়ে আসে হারুন। এরপর চোয়ালের ডায়াগ্রাম বদলে দেয় নানান ধরনের অমানুষিক সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ও নির্যাতন চালায় এডিসি হারুন।
এডিসি হারুনও সাবেক পদধারী ছাত্রলীগ নেতাকে থানায় আটকে এমন নির্যাতনের সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন হারুনের এক্স স্ত্রী ও পরকীয়া  প্রেমিকা সানজিদা।
মূলত এডিসি হারুনের পরকীয়ার বলি হলেন ছাত্রলীগের ওই দুই নেতা। পুলিশ যে দ্বন্দে জড়িয়ে পড়েছে,সব কিছুর নেপথ্যে এ নারী পুলিশ কর্মকর্তা সানজিদা আফরিনের ইন্ধনে।
এর আগেও ছাত্রলীগ নেতাদের অ মা নু ষি ক নির্যাতন করার জন্য এডিসি হারুনকে একদিনে দুইবার বদলি করা হয়েছে। বিভিন্ন সময়ে মানুষ পিটিয়ে বিতর্কের জন্ম দেয়া এ হারুন এবার বদলি হয়েছে দাঙ্গা পুলিশে।
অথচ, এই ঘটনার নেপথ্যের নারী পুলিশ কর্মকর্তা সানজিদা এবং তার স্বামী রাষ্ট্রপতির এপিএস’র বিরুদ্ধে এখনো কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।
সূত্র মতে আরো জানা গেছে, ছাত্রাবস্থায় ওই পুলিশ কর্মকর্তা সানজিদাকে বিয়ে করেছিলেন এডিসি হারুন।পরে তা বিচ্ছেদ হয়ে গেলেও আবার সম্পর্ক বাসা বাধে পরকীয়ার মাধ্যমে। তাদের এ পরকীয়া প্রেমলীলা বহুদিন পূর্ব থেকেই। বিয়ের এ তথ্য গোপন করে আর এক বিসিএস ক্যাডারকে বিয়ে করেছেন নারী পুলিশ কর্মকর্তা সানজিদা। তবে এডিসি হারুনের সাথে তার পুরাতন পরকীয়া প্রেমলীলা এখনে বিদ্যমান।