ঢাকা ১০:৪৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধে তৎপর কাঁচপুর হাইওয়ে পুলিশ,রহস্যজনক ভূমিকায় সোনারগাঁ পুলিশ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:৫৪:০৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ মে ২০২৩ ৬৮ বার পড়া হয়েছে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট।।

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের কাঁচপুর এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে পরিবহন চাঁদাবাজদের উপদ্রুপ ক্রমশই বেড়েই চলছে,কিছুতেই প্রতিহত করা যাচ্ছে না ।
গত সাড়ে ৪ মাসে ১৬ জন পরিবহন চাঁদাবাজকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে হাইওয়ে পুলিশ। আটক চাঁদাবাজদের স্থানীয় সোনারগাঁও থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে হাইওয়ে পুলিশের পাশাপাশি সোনারগাও থানা পুলিশের কঠোর তৎপর হওয়ার দাবি জানান পরিবহন মালিক ও শ্রমিকরা।
কাঁচপুর হাইওয়ে থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধের লক্ষ্যে হাইওয়ে পুলিশ প্রতিনিয়তই সাড়াশি অভিযান পরিচালনা করে আসছেন। এসব অভিযানে গত সাড়ে ৪ মাসে মো: সাইফুল, শরিফ, লিখন মোল্লা, জাকির হোসেন, হৃদয়, পলাশ, আক্তার খান, সোহাগ, সুজন, জনি, আব্দুল্লাহ, হৃদয় হোসেন আকাশ, ও রাব্বি নামে ১৬ জন পরিবহন চাঁদাবাজকে আটক করেছে হাইওয়ে পুলিশ। আটকদের থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হলে তাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা দায়ের করে আদালতে প্রেরন করা হয়েছে।
পরিবহন শ্রমিকরা জানান, পুলিশ এক চাঁদাবাজকে আটক করলে আরেক চাঁদাবাজ রাস্তায় নামেন। এমন পরিস্থিতিতে হাইওয়ে পুলিশের পাশাপাশি স্থানীয় থানা পুলিশকেও এসব চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান গ্রহণের দাবি জানান শ্রমিক-মালিক নেতৃবৃন্দগন।
কাঁচপুর হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) ইব্রাহীম জানান, কোন অবস্থাতেই মহাসড়কে চাঁদাবাজি করতে দেওয়া হবেনা। তথ্য প্রমাণ পেলেই চাঁদাবাজদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে। তিনি আরও জানান মহাসড়কে পরিবহনে চাঁদাবাজি বন্ধে হাইওয়ে পুলিশের তৎপরতা অব্যাহত থাকবে। সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মাহাবুব আলম সুমন বলেন, চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে থানা পুলিশ সর্বদা তৎপর রয়েছে। গত সোমবারেও হাইওয়ে পুলিশ একজন চাঁদাবাজকে ধরে থানায় হস্তান্তর করলে মামলা দিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।হাইওয়ে পুলিশ গাজীপুর রিজিওনের নারায়ণগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল কাদের জিলানী বলেন, মহাসড়কের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এবং চাঁদাবাজি বন্ধে হাইওয়ে পুলিশ কঠোর অবস্থানে রয়েছে। মহাসড়কে কোন বিশৃঙ্খলা ও চাঁদাবাজি করলেই তাকে আইনের আওতায় আনা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধে তৎপর কাঁচপুর হাইওয়ে পুলিশ,রহস্যজনক ভূমিকায় সোনারগাঁ পুলিশ

আপডেট সময় : ০৮:৫৪:০৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ মে ২০২৩

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট।।

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের কাঁচপুর এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে পরিবহন চাঁদাবাজদের উপদ্রুপ ক্রমশই বেড়েই চলছে,কিছুতেই প্রতিহত করা যাচ্ছে না ।
গত সাড়ে ৪ মাসে ১৬ জন পরিবহন চাঁদাবাজকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে হাইওয়ে পুলিশ। আটক চাঁদাবাজদের স্থানীয় সোনারগাঁও থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে হাইওয়ে পুলিশের পাশাপাশি সোনারগাও থানা পুলিশের কঠোর তৎপর হওয়ার দাবি জানান পরিবহন মালিক ও শ্রমিকরা।
কাঁচপুর হাইওয়ে থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধের লক্ষ্যে হাইওয়ে পুলিশ প্রতিনিয়তই সাড়াশি অভিযান পরিচালনা করে আসছেন। এসব অভিযানে গত সাড়ে ৪ মাসে মো: সাইফুল, শরিফ, লিখন মোল্লা, জাকির হোসেন, হৃদয়, পলাশ, আক্তার খান, সোহাগ, সুজন, জনি, আব্দুল্লাহ, হৃদয় হোসেন আকাশ, ও রাব্বি নামে ১৬ জন পরিবহন চাঁদাবাজকে আটক করেছে হাইওয়ে পুলিশ। আটকদের থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হলে তাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মামলা দায়ের করে আদালতে প্রেরন করা হয়েছে।
পরিবহন শ্রমিকরা জানান, পুলিশ এক চাঁদাবাজকে আটক করলে আরেক চাঁদাবাজ রাস্তায় নামেন। এমন পরিস্থিতিতে হাইওয়ে পুলিশের পাশাপাশি স্থানীয় থানা পুলিশকেও এসব চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান গ্রহণের দাবি জানান শ্রমিক-মালিক নেতৃবৃন্দগন।
কাঁচপুর হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) ইব্রাহীম জানান, কোন অবস্থাতেই মহাসড়কে চাঁদাবাজি করতে দেওয়া হবেনা। তথ্য প্রমাণ পেলেই চাঁদাবাজদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে। তিনি আরও জানান মহাসড়কে পরিবহনে চাঁদাবাজি বন্ধে হাইওয়ে পুলিশের তৎপরতা অব্যাহত থাকবে। সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মাহাবুব আলম সুমন বলেন, চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে থানা পুলিশ সর্বদা তৎপর রয়েছে। গত সোমবারেও হাইওয়ে পুলিশ একজন চাঁদাবাজকে ধরে থানায় হস্তান্তর করলে মামলা দিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।হাইওয়ে পুলিশ গাজীপুর রিজিওনের নারায়ণগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল কাদের জিলানী বলেন, মহাসড়কের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এবং চাঁদাবাজি বন্ধে হাইওয়ে পুলিশ কঠোর অবস্থানে রয়েছে। মহাসড়কে কোন বিশৃঙ্খলা ও চাঁদাবাজি করলেই তাকে আইনের আওতায় আনা হবে।