ঢাকা ০২:১৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফরিদগঞ্জে এক রাতে ১৪ গরু চুরি, অসহায় খামারীরা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:২৯:৪৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩ জুন ২০২৪ ২০ বার পড়া হয়েছে

 

এমতেয়াজ ফরহাদ চাঁদপুর প্রতিনিধি।।

 

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার সুবিদপুরে এক প্রবাসী’র বাড়ি থেকে ১৪টি গরু চুরির ঘটনা ঘটেছে। চুরির ঘটনায় খামারি অসহায় হয়ে পড়েছে।

শুক্রবার (১জুন) রাতে বাড়ির পাকা গোয়াল ঘরের তালা ভেঙে ১৪টি গরু চুরির ঘটনা ঘটে। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। কুয়েত ফেরত মো. আব্দুল কুদ্দুস (৫০) দীর্ঘদিন প্রবাসে ছিলেন। তিনি উপজেলার সুবিদপুর পূর্ব ইউনিয়নের সুবিদপুর গ্রামের লকিত উল্যার ছেলে।

জানা গেছে, শুক্রবার দিবাগত রাত ৪ টার দিকে কুদ্দুস নামাজ পড়ার উদ্দেশ্যে বের হতে গিয়ে দরজা বাহির থেকে আটকানো পায়। পরে কুদ্দুস তার ছোট ভাই আব্দুর রহিমকে ফোন দিয়ে দরজা খুলতে বলে। দরজা খুলে গোয়ালঘরে গিয়ে দেখে তালা ভাঙ্গা এবং গোয়াল ঘরে থাকা ছোট-বড় ১৪টি গরু নিয়ে যায় এবং গোয়াল ঘর শূন্য অবস্থায় দেখতে পান।

সারাদিন খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে শনিবার রাতে ফরিদগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। পরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হাজীগঞ্জ সার্কেল) পংকজ কুমার দে সহ পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

প্রবাস ফেরত আব্দুল কুদ্দুস কৃষি কাজের পাশাপাশি গরুগুলোর দেখভাল করতেন।

তিনি জানান, রাত ১২টার দিকে গোয়াল ঘরে গরুগুলো দেখে আসেন।  উঠে গোয়াল ঘর শূন্য পান।

পারিবারিক সদস্যরা জানান, আমরা প্রতিদিনের ন্যায় রাত ১২ টার দিকে ঘুমিয়ে পড়ি, রাত ৪ টার দিকে ঘুম থেকে উঠে বাহিরে যাওয়ার জন্য দরজা খুলতে গেলে দেখি বাহির থেকে দরজা আটকানো। তাৎক্ষণিক আমার ছোট ভাই আব্দুর রহিমকে ফোন দিয়ে দরজা খুলতে বলি এবং বাহিরে গিয়ে দেখি গোয়াল ঘরের দরজা ভাঙ্গা এবং গোয়ালে থাকা ছোট-বড় ১৪ টি গরু নেই।

তারা আরো জানান, আমরা প্রতিনিয়ত ৬০ কেজি দুধ বিক্রি করি। তা দিয়ে কোন রকম পরিবারের সদস্যদের নিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে আসছি। চোর আমার সব শেষ করে দিয়েছে।

এ ব্যাপারে ফরিদগঞ্জ থানার অতিরিক্ত দায়িত্বে অফিসার ইনচার্জ মিন্টু দত্ত জানান,  পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। চুরি হওয়া গরুগুলো উদ্ধার করেত পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

ফরিদগঞ্জে এক রাতে ১৪ গরু চুরি, অসহায় খামারীরা

আপডেট সময় : ০৬:২৯:৪৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩ জুন ২০২৪

 

এমতেয়াজ ফরহাদ চাঁদপুর প্রতিনিধি।।

 

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার সুবিদপুরে এক প্রবাসী’র বাড়ি থেকে ১৪টি গরু চুরির ঘটনা ঘটেছে। চুরির ঘটনায় খামারি অসহায় হয়ে পড়েছে।

শুক্রবার (১জুন) রাতে বাড়ির পাকা গোয়াল ঘরের তালা ভেঙে ১৪টি গরু চুরির ঘটনা ঘটে। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। কুয়েত ফেরত মো. আব্দুল কুদ্দুস (৫০) দীর্ঘদিন প্রবাসে ছিলেন। তিনি উপজেলার সুবিদপুর পূর্ব ইউনিয়নের সুবিদপুর গ্রামের লকিত উল্যার ছেলে।

জানা গেছে, শুক্রবার দিবাগত রাত ৪ টার দিকে কুদ্দুস নামাজ পড়ার উদ্দেশ্যে বের হতে গিয়ে দরজা বাহির থেকে আটকানো পায়। পরে কুদ্দুস তার ছোট ভাই আব্দুর রহিমকে ফোন দিয়ে দরজা খুলতে বলে। দরজা খুলে গোয়ালঘরে গিয়ে দেখে তালা ভাঙ্গা এবং গোয়াল ঘরে থাকা ছোট-বড় ১৪টি গরু নিয়ে যায় এবং গোয়াল ঘর শূন্য অবস্থায় দেখতে পান।

সারাদিন খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে শনিবার রাতে ফরিদগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। পরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হাজীগঞ্জ সার্কেল) পংকজ কুমার দে সহ পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

প্রবাস ফেরত আব্দুল কুদ্দুস কৃষি কাজের পাশাপাশি গরুগুলোর দেখভাল করতেন।

তিনি জানান, রাত ১২টার দিকে গোয়াল ঘরে গরুগুলো দেখে আসেন।  উঠে গোয়াল ঘর শূন্য পান।

পারিবারিক সদস্যরা জানান, আমরা প্রতিদিনের ন্যায় রাত ১২ টার দিকে ঘুমিয়ে পড়ি, রাত ৪ টার দিকে ঘুম থেকে উঠে বাহিরে যাওয়ার জন্য দরজা খুলতে গেলে দেখি বাহির থেকে দরজা আটকানো। তাৎক্ষণিক আমার ছোট ভাই আব্দুর রহিমকে ফোন দিয়ে দরজা খুলতে বলি এবং বাহিরে গিয়ে দেখি গোয়াল ঘরের দরজা ভাঙ্গা এবং গোয়ালে থাকা ছোট-বড় ১৪ টি গরু নেই।

তারা আরো জানান, আমরা প্রতিনিয়ত ৬০ কেজি দুধ বিক্রি করি। তা দিয়ে কোন রকম পরিবারের সদস্যদের নিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে আসছি। চোর আমার সব শেষ করে দিয়েছে।

এ ব্যাপারে ফরিদগঞ্জ থানার অতিরিক্ত দায়িত্বে অফিসার ইনচার্জ মিন্টু দত্ত জানান,  পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। চুরি হওয়া গরুগুলো উদ্ধার করেত পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে।