ঢাকা ০৯:৫৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিশুকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যার বর্ণনা দিতে গিয়ে আবেগাপ্লুত র‍্যাব কর্মকর্তা পাশা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:৪৫:৪২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ মে ২০২৪ ৪১ বার পড়া হয়েছে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট।।

 

কুমিল্লায় চাঞ্চল্যকর তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া এক শিক্ষার্থী ধর্ষণের পর হত্যা মামলার একমাত্র আসামি মফিজুল ইসলাম মফুকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১১’র একটি চৌকস অভিযানিক দল।এ হত্যাকান্ডে ঘটনায় উদঘাটনের ঘটনা সংবাদ সম্মেলনে সে বর্ণনা দিতে গিয়েই আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন র‍্যাব-১১’র সিও তানভীর মাহমুদ পাশা।

বুধবার (১ মে) সকালে র‍্যাব কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বর্ননায় তিনি বলেন, ২৯ এপ্রিল সকালে স্কুলে যায় ওই শিশুটি। নির্দিষ্ট সময় পেরিয়ে যাবার পরও সে বাড়িতে ফেরেনি। তখন মেয়েটির মা স্কুলে যোগাযোগ করেন। সেখানে গিয়ে দেখেন, স্কুল ছুটি হয়েছে অনেক আগে। অন্য জায়গাতেও খোঁজাখুজি করেন। কিন্তু কোথাও পাননি।
ওই দিন বিকেলে ধান ক্ষেতের মধ্যে ওই শিশুর মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় লোকজন। পরে পুলিশকে খবর দেয়া হলে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।


র‍্যাব কর্মকর্তা তানভীর মাহমুদ পাশা বলেন, ৮ বছর বয়সী শিশুটি, যে পথ দিয়ে যাতায়াত করতো, তা আগে থেকে জানতো অভিযুক্তকারী। ঘটনার দিন তাকে জোর করে টেনে নিয়ে গিয়ে চালায় অমানবিক পাশবিক নির্যাতন। এসময় মেয়েটি আর্তচিৎকার করলে একপর্যায়ে তাকে গলা টিপে হত্যা করা হয়।

এ চাঞ্চল্যকর তথ্য ও ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে কিছুটা আবেগাপ্লুত হয়ে পড়তে দেখা যায়, র‍্যাব-১১’র সিও তানভীর মাহমুদকে।কিছু বুঝে ওঠার আগেই পরক্ষণে তিনি নিজেকে সামলে নিয়ে আবারও কথা বলা শুরু করেন।

কীভাবে মফুকে গ্রেফতার করা হলো, তা জানিয়ে তানভীর মাহমুদ পাশা বলেন, এ ঘটনায় ওই শিশুর মা বাদী হয়ে সদর দক্ষিণ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করলে অভিযানে নামে র‍্যাব-১১। চাঁদপুর জেলার শাহরাস্তি এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয় অভিযুক্ত ওই নরঘাতককে।হত্য মফু মাদকাসক্ত বলেও জানায় র‍্যাব।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

শিশুকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যার বর্ণনা দিতে গিয়ে আবেগাপ্লুত র‍্যাব কর্মকর্তা পাশা

আপডেট সময় : ১২:৪৫:৪২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ মে ২০২৪

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট।।

 

কুমিল্লায় চাঞ্চল্যকর তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া এক শিক্ষার্থী ধর্ষণের পর হত্যা মামলার একমাত্র আসামি মফিজুল ইসলাম মফুকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১১’র একটি চৌকস অভিযানিক দল।এ হত্যাকান্ডে ঘটনায় উদঘাটনের ঘটনা সংবাদ সম্মেলনে সে বর্ণনা দিতে গিয়েই আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন র‍্যাব-১১’র সিও তানভীর মাহমুদ পাশা।

বুধবার (১ মে) সকালে র‍্যাব কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বর্ননায় তিনি বলেন, ২৯ এপ্রিল সকালে স্কুলে যায় ওই শিশুটি। নির্দিষ্ট সময় পেরিয়ে যাবার পরও সে বাড়িতে ফেরেনি। তখন মেয়েটির মা স্কুলে যোগাযোগ করেন। সেখানে গিয়ে দেখেন, স্কুল ছুটি হয়েছে অনেক আগে। অন্য জায়গাতেও খোঁজাখুজি করেন। কিন্তু কোথাও পাননি।
ওই দিন বিকেলে ধান ক্ষেতের মধ্যে ওই শিশুর মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় লোকজন। পরে পুলিশকে খবর দেয়া হলে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।


র‍্যাব কর্মকর্তা তানভীর মাহমুদ পাশা বলেন, ৮ বছর বয়সী শিশুটি, যে পথ দিয়ে যাতায়াত করতো, তা আগে থেকে জানতো অভিযুক্তকারী। ঘটনার দিন তাকে জোর করে টেনে নিয়ে গিয়ে চালায় অমানবিক পাশবিক নির্যাতন। এসময় মেয়েটি আর্তচিৎকার করলে একপর্যায়ে তাকে গলা টিপে হত্যা করা হয়।

এ চাঞ্চল্যকর তথ্য ও ঘটনার বর্ণনা দিতে গিয়ে কিছুটা আবেগাপ্লুত হয়ে পড়তে দেখা যায়, র‍্যাব-১১’র সিও তানভীর মাহমুদকে।কিছু বুঝে ওঠার আগেই পরক্ষণে তিনি নিজেকে সামলে নিয়ে আবারও কথা বলা শুরু করেন।

কীভাবে মফুকে গ্রেফতার করা হলো, তা জানিয়ে তানভীর মাহমুদ পাশা বলেন, এ ঘটনায় ওই শিশুর মা বাদী হয়ে সদর দক্ষিণ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করলে অভিযানে নামে র‍্যাব-১১। চাঁদপুর জেলার শাহরাস্তি এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয় অভিযুক্ত ওই নরঘাতককে।হত্য মফু মাদকাসক্ত বলেও জানায় র‍্যাব।