ঢাকা ১২:১১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

টেকনাফের রঙ্গীখালীতে র‍্যাবের অভিযানে ৪০ হাজার ইয়াবাসহ আটক ১

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:০৫:১৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪ ১৩ বার পড়া হয়েছে
ফরহাদ রহমান,টেকনাফ প্রতিনিধি।।
র‌্যাব-১৫, কক্সবাজার দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি বাস্তবায়নে বদ্ধ পরিকর। ধারাবাহিকতায় দেশব্যাপী মাদকের বিস্তাররোধসহ সমাজে বিরাজমান নানাবিধ অপরাধ দমন ও অপরাধের সাথে জড়িত অপরাধীদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে র‌্যাব-১৫ নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।
এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-১৫, কক্সবাজার এর একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে, কক্সবাজার জেলার টেকনাফ থানাধীন হ্নীলা ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডস্থ রঙ্গীখালী এলাকায় কতিপয় ইয়াবা ব্যবসায়ী ইয়াবা ট্যাবলেট ক্রয়-বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে গত ২২ মে ২০২৪ তারিখ অনুমান ১৩.২৫ ঘটিকায় র‌্যাব-১৫, কক্সবাজার হোয়াইক্যং ক্যাম্পের একটি চৌকস আভিযানিক দল বর্ণিত স্থানে মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে। অভিযান পরিচালনাকালে র‌্যাবের উপস্থিতি বুঝতে পেরে দৌড়ে পালানোর চেষ্টাকালে মোঃ আরমান নামে একজন মাদক কারবারীকে গ্রেফতার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তার অপর একজন সহযোগী কৌশলে দ্রুত পালিয়ে যায় বলে গ্রেফতারকৃত মাদক কারবারী স্বীকার করে। পরবর্তীতে  উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত ব্যক্তির দেহ তল্লাশী করে তার ডান হাতে থাকা প্লাষ্টিকের ব্যাগ হতে সর্বমোট ৪০,০০০ (চল্লিশ হাজার) পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়।
গ্রেফতারকৃত মাদক কারবারীর হলেন-মোঃ আরমান (২৪), পিতা-সৈয়দ আলম, মাতা-ছেনোয়ারা বেগম, সাং-শীলবনিয়াপাড়া (সৈয়দ আলমের বাড়ী), ০৭নং ওয়ার্ড, সদর ইউনিয়ন, থানা-টেকনাফ, জেলা-কক্সবাজার বলে জানা যায়।
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত এবং পলাতক মাদক কারবারী দীর্ঘদিন যাবত মাদক ব্যবসায়ের সাথে জড়িত । তারা পরস্পর যোগসাজসে মাদকদ্রব্য ইয়াবা পার্শ্ববর্তী সীমান্তবর্তী এলাকা হতে সংগ্রহ করে নিজেদের হেফাজতে মজুদ করে থাকে। পরবর্তীতে মজুদকৃত ইয়াবার চালান কক্সবাজারের উখিয়ায় বিক্রয়ের পাশাপাশি তারা আর্থিকভাবে অধিক লাভবান হওয়ার জন্য নানাবিধ অভিনব পন্থায় মাদক উখিয়া থেকে কক্সবাজারের বিভিন্ন জায়গায় নিয়ে এসে বিক্রয় করে থাকে বলে জানায়।
উদ্ধারকৃত ইয়াবাসহ গ্রেফতারকৃত এবং পলাতক মাদক কারবারীদ্বয়ের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণার্থে কক্সবাজার জেলার টেকনাফ মডেল থানায় লিখিত এজাহার দাখিল করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

টেকনাফের রঙ্গীখালীতে র‍্যাবের অভিযানে ৪০ হাজার ইয়াবাসহ আটক ১

আপডেট সময় : ০৭:০৫:১৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪
ফরহাদ রহমান,টেকনাফ প্রতিনিধি।।
র‌্যাব-১৫, কক্সবাজার দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি বাস্তবায়নে বদ্ধ পরিকর। ধারাবাহিকতায় দেশব্যাপী মাদকের বিস্তাররোধসহ সমাজে বিরাজমান নানাবিধ অপরাধ দমন ও অপরাধের সাথে জড়িত অপরাধীদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে র‌্যাব-১৫ নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।
এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-১৫, কক্সবাজার এর একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে, কক্সবাজার জেলার টেকনাফ থানাধীন হ্নীলা ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডস্থ রঙ্গীখালী এলাকায় কতিপয় ইয়াবা ব্যবসায়ী ইয়াবা ট্যাবলেট ক্রয়-বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে গত ২২ মে ২০২৪ তারিখ অনুমান ১৩.২৫ ঘটিকায় র‌্যাব-১৫, কক্সবাজার হোয়াইক্যং ক্যাম্পের একটি চৌকস আভিযানিক দল বর্ণিত স্থানে মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে। অভিযান পরিচালনাকালে র‌্যাবের উপস্থিতি বুঝতে পেরে দৌড়ে পালানোর চেষ্টাকালে মোঃ আরমান নামে একজন মাদক কারবারীকে গ্রেফতার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তার অপর একজন সহযোগী কৌশলে দ্রুত পালিয়ে যায় বলে গ্রেফতারকৃত মাদক কারবারী স্বীকার করে। পরবর্তীতে  উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত ব্যক্তির দেহ তল্লাশী করে তার ডান হাতে থাকা প্লাষ্টিকের ব্যাগ হতে সর্বমোট ৪০,০০০ (চল্লিশ হাজার) পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়।
গ্রেফতারকৃত মাদক কারবারীর হলেন-মোঃ আরমান (২৪), পিতা-সৈয়দ আলম, মাতা-ছেনোয়ারা বেগম, সাং-শীলবনিয়াপাড়া (সৈয়দ আলমের বাড়ী), ০৭নং ওয়ার্ড, সদর ইউনিয়ন, থানা-টেকনাফ, জেলা-কক্সবাজার বলে জানা যায়।
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, গ্রেফতারকৃত এবং পলাতক মাদক কারবারী দীর্ঘদিন যাবত মাদক ব্যবসায়ের সাথে জড়িত । তারা পরস্পর যোগসাজসে মাদকদ্রব্য ইয়াবা পার্শ্ববর্তী সীমান্তবর্তী এলাকা হতে সংগ্রহ করে নিজেদের হেফাজতে মজুদ করে থাকে। পরবর্তীতে মজুদকৃত ইয়াবার চালান কক্সবাজারের উখিয়ায় বিক্রয়ের পাশাপাশি তারা আর্থিকভাবে অধিক লাভবান হওয়ার জন্য নানাবিধ অভিনব পন্থায় মাদক উখিয়া থেকে কক্সবাজারের বিভিন্ন জায়গায় নিয়ে এসে বিক্রয় করে থাকে বলে জানায়।
উদ্ধারকৃত ইয়াবাসহ গ্রেফতারকৃত এবং পলাতক মাদক কারবারীদ্বয়ের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণার্থে কক্সবাজার জেলার টেকনাফ মডেল থানায় লিখিত এজাহার দাখিল করা হয়েছে।