ঢাকা ০৮:৫০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রেমালের তাণ্ডবে সব লন্ডভন্ড, ৫ জনের মৃত্যু, শিশুসহ নিখোঁজ ২

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:১৪:৪৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪ ১৫ বার পড়া হয়েছে

 

 

সমকালীন কাগজ ডেস্ক।।

 

দেশের উপকূল অতিক্রম করছে প্রবল ঘূর্ণিঝড় রেমাল।এর প্রভাবে সব লন্ডভন্ড হয়ে হয়ে গেছে। ঘূর্ণিঝড় পুরোপুরি অতিক্রম করতে আরও ঘণ্টা দুয়েকের বেশি সময় লাগতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর, তবে এর প্রভাব থাকবে আরও ৬ থেকে ৭ ঘণ্টারও বেশি সময়। এরপর ঘূর্ণিঝড়টি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়ে আস্তে আস্তে দুর্বল হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এদিকে, বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড়টি রোববার (২৬ মে) রাত ৮টার দিকে উপকূলে আঘাত হানে। ঝড়ের প্রভাবে গতকাল থেকে আজ সোমবার সকাল ১১টা পর্যন্ত বরিশাল, পটুয়াখালী, সাতক্ষীরা ও ভোলা ও চট্টগ্রামে এ পর্যন্ত ৫ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।তবে হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। অন্যদিকে খুলনার উপকূলীয় এলাকা মোংলায় ট্রলারডুবিতে নিখোঁজ রয়েছে শিশুসহ দুইজন।

এদিকে খবর পাওয়া গেছে বরিশালের রুপাতলীতে একটি ভবনের ছাদের দেয়াল ধসে খাবার হোটেলের টিনের ওপর পড়ে দুজন নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। নিহতরা হলেন, লোকমান হোটেলের মালিক লোকমান ও কর্মী মোকসেদুর রহমান। এই ঘটনায় শাকিব নামে আরও এক হোটেলের কর্মী গুরুতর আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। আহত কর্মীকে বরিশাল শেরে-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আরিচুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রোববার দুপুরের দিকে পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় ঘূর্ণিঝড় রেমালের হাত থেকে ফুপু ও বোনকে বাচাতে  গিয়ে মো. শরীফ (২৭) নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। শরীফের ফুপু মাতোয়ারা বেগম কাউয়ারচর এলাকায় বসবাস করেন। এসময়  বাড়িতে তার বোনও ছিল। বেলা ২টার দিকে দিকে অনন্তপাড়া এলাকা থেকে শরীফ তার বড় ভাই ও ফুপাকে নিয়ে বোন সহ ফুপুকে উদ্ধারে যায়। এসময় উপকূলীয় সমুদ্রের পানিতে কাউয়ারচর এলাকা ৫ থেকে ৭ ফুট পানিতে প্লাবিত ছিলো। এসময় সাঁতার কেটে তারা ফুপুর ঘরে যাওয়ার সময় প্রবল ঢেউয়ের প্রভাবে শরীফ হারিয়ে যায়। এক ঘণ্টা খোজাখুজি পর ওই স্থান থেকে তার মরদেহটি উদ্ধার করে স্থানীয়রা। মহিপুর থানার ওসি আনোয়ার তালুকদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

গতকাল সন্ধ্যার দিকে সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার নাপিতখালী আশ্রয়কেন্দ্রে যাওয়ার পথে শওকত আলী মোড়ল (৭০) নামের এক বৃদ্ধ মারা যায়। তিনি শ্যামনগর উপজেলার গাবুরা ইউনিয়নের নাপিতখালী গ্রামের মৃত নরীম মোড়ের ছেলে। শ্যামনগর থানার ওসি আবুল কালাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ভোলায় ঘরচাপায় মনেজা খাতুন (৫০) নামে এক নারী মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। জানা গেছে ওই নারী লালমোহনের পশ্চিম চরউমেদ ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের চরউমেদ গ্রামের তেলী বাড়ির আব্দুল কাদেরের স্ত্রী। লালমোহন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. তৌহিদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

প্রচুর বৃষ্টিপাত ও জলাবদ্ধতার কারণে চট্টগ্রামের বায়েজিদ বোস্তামি এলাকায় সোমবার দেয়াল ধসে সাইফুল ইসলাম হৃদয় নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়। ফায়ার সার্ভিসের বায়েজিদ বোস্তামী স্টেশনের কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সোমবার (২৭ মে) সকাল সোয়া ৮টায় আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক গণমাধ্যমকে বলেন, ‘প্রবল ঘূর্ণিঝড় রেমাল ১০টা অথবা ১১টার মধ্যে সাধারণ ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে। এরপর এটি নিম্নচাপে পরিণত হবে। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে সারাদেশেই আজ বৃষ্টি হবে।’

এ বিষয়ে আবহাওয়ার ১৮ নম্বর বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, প্রবল ঘূর্ণিঝড় রেমাল উত্তর দিকে অগ্রসর হয়ে উপকূল অতিক্রম সম্পন্ন করে বর্তমানে কয়রা ও খুলনার নিকট অবস্থান করছে। ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৬৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৯০ কিলোমিটার, যা দমকা অথবা ঝোড়ো হাওয়ার আকারে ১২০ কিলোমিটারের পর্যন্ত বাড়ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

রেমালের তাণ্ডবে সব লন্ডভন্ড, ৫ জনের মৃত্যু, শিশুসহ নিখোঁজ ২

আপডেট সময় : ০৯:১৪:৪৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪

 

 

সমকালীন কাগজ ডেস্ক।।

 

দেশের উপকূল অতিক্রম করছে প্রবল ঘূর্ণিঝড় রেমাল।এর প্রভাবে সব লন্ডভন্ড হয়ে হয়ে গেছে। ঘূর্ণিঝড় পুরোপুরি অতিক্রম করতে আরও ঘণ্টা দুয়েকের বেশি সময় লাগতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর, তবে এর প্রভাব থাকবে আরও ৬ থেকে ৭ ঘণ্টারও বেশি সময়। এরপর ঘূর্ণিঝড়টি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়ে আস্তে আস্তে দুর্বল হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এদিকে, বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড়টি রোববার (২৬ মে) রাত ৮টার দিকে উপকূলে আঘাত হানে। ঝড়ের প্রভাবে গতকাল থেকে আজ সোমবার সকাল ১১টা পর্যন্ত বরিশাল, পটুয়াখালী, সাতক্ষীরা ও ভোলা ও চট্টগ্রামে এ পর্যন্ত ৫ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।তবে হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। অন্যদিকে খুলনার উপকূলীয় এলাকা মোংলায় ট্রলারডুবিতে নিখোঁজ রয়েছে শিশুসহ দুইজন।

এদিকে খবর পাওয়া গেছে বরিশালের রুপাতলীতে একটি ভবনের ছাদের দেয়াল ধসে খাবার হোটেলের টিনের ওপর পড়ে দুজন নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। নিহতরা হলেন, লোকমান হোটেলের মালিক লোকমান ও কর্মী মোকসেদুর রহমান। এই ঘটনায় শাকিব নামে আরও এক হোটেলের কর্মী গুরুতর আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। আহত কর্মীকে বরিশাল শেরে-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আরিচুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রোববার দুপুরের দিকে পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় ঘূর্ণিঝড় রেমালের হাত থেকে ফুপু ও বোনকে বাচাতে  গিয়ে মো. শরীফ (২৭) নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। শরীফের ফুপু মাতোয়ারা বেগম কাউয়ারচর এলাকায় বসবাস করেন। এসময়  বাড়িতে তার বোনও ছিল। বেলা ২টার দিকে দিকে অনন্তপাড়া এলাকা থেকে শরীফ তার বড় ভাই ও ফুপাকে নিয়ে বোন সহ ফুপুকে উদ্ধারে যায়। এসময় উপকূলীয় সমুদ্রের পানিতে কাউয়ারচর এলাকা ৫ থেকে ৭ ফুট পানিতে প্লাবিত ছিলো। এসময় সাঁতার কেটে তারা ফুপুর ঘরে যাওয়ার সময় প্রবল ঢেউয়ের প্রভাবে শরীফ হারিয়ে যায়। এক ঘণ্টা খোজাখুজি পর ওই স্থান থেকে তার মরদেহটি উদ্ধার করে স্থানীয়রা। মহিপুর থানার ওসি আনোয়ার তালুকদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

গতকাল সন্ধ্যার দিকে সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার নাপিতখালী আশ্রয়কেন্দ্রে যাওয়ার পথে শওকত আলী মোড়ল (৭০) নামের এক বৃদ্ধ মারা যায়। তিনি শ্যামনগর উপজেলার গাবুরা ইউনিয়নের নাপিতখালী গ্রামের মৃত নরীম মোড়ের ছেলে। শ্যামনগর থানার ওসি আবুল কালাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ভোলায় ঘরচাপায় মনেজা খাতুন (৫০) নামে এক নারী মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। জানা গেছে ওই নারী লালমোহনের পশ্চিম চরউমেদ ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের চরউমেদ গ্রামের তেলী বাড়ির আব্দুল কাদেরের স্ত্রী। লালমোহন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. তৌহিদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

প্রচুর বৃষ্টিপাত ও জলাবদ্ধতার কারণে চট্টগ্রামের বায়েজিদ বোস্তামি এলাকায় সোমবার দেয়াল ধসে সাইফুল ইসলাম হৃদয় নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়। ফায়ার সার্ভিসের বায়েজিদ বোস্তামী স্টেশনের কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সোমবার (২৭ মে) সকাল সোয়া ৮টায় আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিক গণমাধ্যমকে বলেন, ‘প্রবল ঘূর্ণিঝড় রেমাল ১০টা অথবা ১১টার মধ্যে সাধারণ ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে। এরপর এটি নিম্নচাপে পরিণত হবে। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে সারাদেশেই আজ বৃষ্টি হবে।’

এ বিষয়ে আবহাওয়ার ১৮ নম্বর বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, প্রবল ঘূর্ণিঝড় রেমাল উত্তর দিকে অগ্রসর হয়ে উপকূল অতিক্রম সম্পন্ন করে বর্তমানে কয়রা ও খুলনার নিকট অবস্থান করছে। ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৬৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৯০ কিলোমিটার, যা দমকা অথবা ঝোড়ো হাওয়ার আকারে ১২০ কিলোমিটারের পর্যন্ত বাড়ছে।