ঢাকা ১২:৩৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নারায়ণগঞ্জে ফের বিস্ফোরণ: একই পরিবারের দগ্ধ ৫

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:০৯:৫২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৯ জুন ২০২৩ ১০৪ বার পড়া হয়েছে

অনলাইন ডেস্ক

 

নারায়ণগঞ্জের কাশিপুরে চার্জার ফ্যানে আগুন লেগে বিস্ফোরণের ফলে একই পরিবারের পাঁচজন অগ্নিদগ্ধ হয়েছেন। তাদের উদ্ধার করে ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার (৯ জুন) সকালের দিকে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।

অগ্নিদগ্ধরা হলেন, আব্দুস সালাম মন্ডল (৫০), বুলবুলি বেগম (৪০), সোনিয়া আক্তার (২৭), টুটুল (২৫) ও মেহজাবিন (৭)।

সোহাগ নামের এক আত্নীয় দগ্ধদেকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নিয়ে আসেন।

ঘটনার বর্ননা দিয়ে তিনি জানান,ঘরে থাকা চার্জার ফ্যানে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লাগার ওরে এ ঘটনা ঘটে। এতে পরিবারের ৫জন সদস্য  দগ্ধ হন । তাদেরকে প্রথমে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হলে অবস্থার অবনতি দেখা দিলে তাদেরকে  দ্রুত শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে আনা হয়।
শেখ হাসিনার জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন ডা. মো. তরিকুল ইসলাম জানান, নারায়ণগঞ্জে একই পরিবারের পাঁচজন দগ্ধ হয়েছেন। তাদের মধ্যে এক নারী সোনিয়া আক্তারের শরীরের ৪২ শতাংশ পুড়ে গেছে, আব্দুস সালামের ৭০ শতাংশ, বুলবুলির ২৫ শতাংশ, টুটুলের ৬০ শতাংশ,ও মেহজাবিন নামে এক শিশুর ৩৫ শতাংশ পুড়ে গেছে। সবার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলেও জানান এ কর্তব্যরত চিকিৎসক।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

নারায়ণগঞ্জে ফের বিস্ফোরণ: একই পরিবারের দগ্ধ ৫

আপডেট সময় : ০৯:০৯:৫২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৯ জুন ২০২৩

অনলাইন ডেস্ক

 

নারায়ণগঞ্জের কাশিপুরে চার্জার ফ্যানে আগুন লেগে বিস্ফোরণের ফলে একই পরিবারের পাঁচজন অগ্নিদগ্ধ হয়েছেন। তাদের উদ্ধার করে ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার (৯ জুন) সকালের দিকে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।

অগ্নিদগ্ধরা হলেন, আব্দুস সালাম মন্ডল (৫০), বুলবুলি বেগম (৪০), সোনিয়া আক্তার (২৭), টুটুল (২৫) ও মেহজাবিন (৭)।

সোহাগ নামের এক আত্নীয় দগ্ধদেকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নিয়ে আসেন।

ঘটনার বর্ননা দিয়ে তিনি জানান,ঘরে থাকা চার্জার ফ্যানে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লাগার ওরে এ ঘটনা ঘটে। এতে পরিবারের ৫জন সদস্য  দগ্ধ হন । তাদেরকে প্রথমে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হলে অবস্থার অবনতি দেখা দিলে তাদেরকে  দ্রুত শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে আনা হয়।
শেখ হাসিনার জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন ডা. মো. তরিকুল ইসলাম জানান, নারায়ণগঞ্জে একই পরিবারের পাঁচজন দগ্ধ হয়েছেন। তাদের মধ্যে এক নারী সোনিয়া আক্তারের শরীরের ৪২ শতাংশ পুড়ে গেছে, আব্দুস সালামের ৭০ শতাংশ, বুলবুলির ২৫ শতাংশ, টুটুলের ৬০ শতাংশ,ও মেহজাবিন নামে এক শিশুর ৩৫ শতাংশ পুড়ে গেছে। সবার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলেও জানান এ কর্তব্যরত চিকিৎসক।