ঢাকা ০৯:০৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

না’গঞ্জে ভুয়া এমবিবিএস ডাক্তার শাহীন শ্রীঘরে, এক বছর কারাদণ্ড 

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:৪২:১৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১১ জুন ২০২৩ ১৬২ বার পড়া হয়েছে
নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি।।
নারায়ণগঞ্জের চাষাড়াস্থ একটি ডায়াগনোস্টিক এন্ড কনসাল্টেন্ট সেন্টারে অভিযান চালিয়ে এক ভুয়া ডাক্তারকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালত, এসময় তাকে এক বছর কারাদন্ড প্রদান করেছে।
এছাড়াও ডায়াগনোস্টিক প্রতিষ্ঠানটিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
রোববার (১১ জুন) দুপুরে নগরীর চাষাড়ার বি বি রোডস্থ গ্রীন লাইফ ডায়াগনোস্টিক এন্ড কনসালটেশন সেন্টারে জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার(এনএসআই) গোপন তথ্যের ভিত্তিতে এই  অভিযান পরিচালিত হয়। এ সময়  জেলা প্রশাসনের দায়িত্বরত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নুসরাত আরা খানম এ অভিযান পরিচালনা করেন। তার সাথে আরও উপস্থিত ছিলেন জেলার এনএসআই’র উধ্বর্তন কর্মকর্তাগন।
আটককৃত ভূয়া ডাক্তারের নাম,মো. সাইদুল ইসলাম শাহীন(৬০),তার গ্রামের বাড়ী চাঁদপুর,তিনি নারায়ণগঞ্জের হাজীগঞ্জ এলাকায় বসবাস করেন এবং এলাকায় হোমিওপ্যাথি চিকিৎসক হিসেবে পরিচিত।
তিনি নিজেকে এমবিবিএস ডাক্তার, মেডিসিন ও অর্থপেডিক এমনকি চর্ম ও যৌন রোগ বিশেষজ্ঞ হিসেবে পরিচয় দিয়ে গ্রীন লাইফ ডায়াগনস্টিক এন্ড কনসাল্টেন্ট সেন্টারে চিকিৎসার নামে দীর্ঘদিন দিন প্রতারণা করে আসছে।
জেলা সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডা: এ কেএম মেহেদী হাসান জানান, ভ্রাম্যমাণ আদালতে দায়িত্বরত নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট নুসরাত আরা, প্রতারক সাইদুল ইসলাম শাহীনের কাছে তার চিকিৎসার সকল সনদ ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখতে চাইলে তিনি তা দেখাতে ব্যর্থ হন। প্রাথমিকভাবে তিনি তার সকল তথ্য ভুয়া বলে শিকার করেন।
এমবিবিএস পাশ না করেই রোগীদের চিকিৎসা দেয়ার কথা স্বীকার করেন এই ভুয়া চিকিৎসক।
এছাড়া ডাক্তার ও নার্সদের বায়োডাটা সহ পূর্নাঙ্গ তথ্য সংরক্ষণ না করার অভিযোগে এবং মেয়াদ উর্ত্তীন ঔষধ রাখার দায়ে গ্রীন ডায়াগনোস্টিক সেন্টারকে ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড করে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

না’গঞ্জে ভুয়া এমবিবিএস ডাক্তার শাহীন শ্রীঘরে, এক বছর কারাদণ্ড 

আপডেট সময় : ১২:৪২:১৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১১ জুন ২০২৩
নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি।।
নারায়ণগঞ্জের চাষাড়াস্থ একটি ডায়াগনোস্টিক এন্ড কনসাল্টেন্ট সেন্টারে অভিযান চালিয়ে এক ভুয়া ডাক্তারকে আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালত, এসময় তাকে এক বছর কারাদন্ড প্রদান করেছে।
এছাড়াও ডায়াগনোস্টিক প্রতিষ্ঠানটিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
রোববার (১১ জুন) দুপুরে নগরীর চাষাড়ার বি বি রোডস্থ গ্রীন লাইফ ডায়াগনোস্টিক এন্ড কনসালটেশন সেন্টারে জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার(এনএসআই) গোপন তথ্যের ভিত্তিতে এই  অভিযান পরিচালিত হয়। এ সময়  জেলা প্রশাসনের দায়িত্বরত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নুসরাত আরা খানম এ অভিযান পরিচালনা করেন। তার সাথে আরও উপস্থিত ছিলেন জেলার এনএসআই’র উধ্বর্তন কর্মকর্তাগন।
আটককৃত ভূয়া ডাক্তারের নাম,মো. সাইদুল ইসলাম শাহীন(৬০),তার গ্রামের বাড়ী চাঁদপুর,তিনি নারায়ণগঞ্জের হাজীগঞ্জ এলাকায় বসবাস করেন এবং এলাকায় হোমিওপ্যাথি চিকিৎসক হিসেবে পরিচিত।
তিনি নিজেকে এমবিবিএস ডাক্তার, মেডিসিন ও অর্থপেডিক এমনকি চর্ম ও যৌন রোগ বিশেষজ্ঞ হিসেবে পরিচয় দিয়ে গ্রীন লাইফ ডায়াগনস্টিক এন্ড কনসাল্টেন্ট সেন্টারে চিকিৎসার নামে দীর্ঘদিন দিন প্রতারণা করে আসছে।
জেলা সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডা: এ কেএম মেহেদী হাসান জানান, ভ্রাম্যমাণ আদালতে দায়িত্বরত নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট নুসরাত আরা, প্রতারক সাইদুল ইসলাম শাহীনের কাছে তার চিকিৎসার সকল সনদ ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখতে চাইলে তিনি তা দেখাতে ব্যর্থ হন। প্রাথমিকভাবে তিনি তার সকল তথ্য ভুয়া বলে শিকার করেন।
এমবিবিএস পাশ না করেই রোগীদের চিকিৎসা দেয়ার কথা স্বীকার করেন এই ভুয়া চিকিৎসক।
এছাড়া ডাক্তার ও নার্সদের বায়োডাটা সহ পূর্নাঙ্গ তথ্য সংরক্ষণ না করার অভিযোগে এবং মেয়াদ উর্ত্তীন ঔষধ রাখার দায়ে গ্রীন ডায়াগনোস্টিক সেন্টারকে ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড করে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট।