ঢাকা ১০:০৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রূপগঞ্জে সাংবাদিক রাশেদের ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:২৪:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ জুন ২০২৪ ১৭ বার পড়া হয়েছে

রূপগঞ্জ প্রতিনিধি।।

দৈনিক মানবকন্ঠ পত্রিকার সাংবাদিকের জমি দখলের উদ্দেশ্যে সন্ত্রাসী হামলা সহ মিথ্যা কাল্পনিক ভিত্তিহীন নাটক সাজিয়ে  হয়রানির অভিযোগ উঠেছে।

 

সাংবাদিক রাশেদ প্রতিপক্ষের লোকজনের হামলার শিকার হয়ে তার সাথে অন্তত ৬ জনকে পিটিয়ে মারাত্মক জখম সহ আহত করা হয়েছেন।

এই ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার (১০ জুন) দুপুরে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের থানার পাশে সুষ্ঠু বিচর চেয়ে ভুক্তভোগী সাংবাদিক সহ এলাকার সুশীল সমাজের লোকজন এবং ভুক্তভোগীর পরিবার ও শতাধিক এলাকাবাসী মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করছে।

সুত্র মতে জানা গেছে, অভিযুক্ত জাকির, আফজাল ও সুখেন বাহিনীর লোকজনদের অনতিবিলম্বে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে শাস্তির দাবি করেন।প্রত্যক্ষদর্শীদের তথ্য মতে,  তারা সকলে রূপগঞ্জ ইউনিয়নের দক্ষিনবাগ এলাকার চিহ্নিত ভূমিদস্যু।

মানববন্ধনে মাথায় আঘাতে আহত সুজন ভূইয়া বলেন, গত বৃহস্পতিবার বিকেলে আমার মামাতো ভাই ও সাংবাদিক রাশেদুল ইসলাম রাশেদের জমি পরিমাপ করার সময় জাকির ও আফজাল গং এর সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে আমাদের ওপর চড়াও হয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। এতে আমার সাথে থাকা ৫ জন গুরুতর আহত হয়। আর আমাকে মেরে ফেলার উদ্দেশ্যে মাথায় কোপ দিয়ে আহত করেছে। এ ঘটনায় বেশ কিছু দিন অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলাম। এই ঘটনায় থানায় মামলা করতে গেলেও রহস্যজনক কারনে মামলা নিচ্ছেনা।উল্টো হামলাকারীরা আমাদের বিরুদ্ধে মামলা করার চেষ্টা চালাচ্ছেন। আমি এর সুষ্ঠু বিচার দাবি জানাচ্ছি।

জমির মালিক সমুল্য সরকার বলেন, এই জমির প্রকৃত মালিক আমি ও আমার ভাই অমুল্য সরকার। আমার কাছে থেকে ১৩ শতাংশ জমি সাংবাদিক রাশেদুল ইসলাম ক্রয় করে নিয়েছে। এখন এই জমি বুঝে নিতে পরিমাপ করতে গেলে তাদের ওপরে সন্ত্রাসী বাহিনী হামলা চালায়। আর ওই জমির পাশের জমির বাড়ি ঘরে কে বা কাহারা আগুন দিয়ে আমার ওপর মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাঁসানো চেষ্টা চালাচ্ছে। আমি এই ঘটনার সুষ্ঠু  বিচার চাই্।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও প্রতিবেশী জোসনা বেগম বলেন, সন্ত্রাসীরা তাদের নিজেদের বাড়ি-ঘর জ্বালিয়ে মিথ্যা অভিযোগ তুলেছে।মামলা অন্য দিকে প্রবাহিত করতে মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগ করেছে।

দৈনিক মানবকণ্ঠ পত্রিকার পূর্বাচল ও ঢাকা প্রতিনিধি রাশেদুল ইসলাম রাশেদ বলেন, আমার ক্রয়কৃত জমি পরিমাপ করতে গেলে সন্ত্রাসীরা আমাদের ওপরও চড়াও হয়ে  হামলা চালিয়েছে। এ সময় একজনকে তারা হত্যা উদ্দেশ্যে কুপিয়ে আহত করেছে। এছাড়া এ ঘটনায় আরও ৫/৬ জন আহত হয়েছে। তারা জোর করে আমার ক্রয়কৃত জমি দখল নিতে চাচ্ছে। এজন্য তার আগুন দেওয়ার নাটক সাজিয়ে মিথ্যা বানোয়াট মনগড়া অভিযোগ তুলছে।

তিনি আরও বলেন, আমার জমিটি নিচু অংশে। অথচ যেই বাড়িতে আগুন লেগেছে সেটি অনেক উঁচু স্থানে। তাছাড়া আগুন দেওয়ার জায়গাটি আমার না, সেখানে আগুন দেওয়ার প্রশ্ন উঠেনা। এই আগুন দেওয়ার ঘটনা যে মিথ্যা নাটক তার ভিডিও আমার কাছে আছে।

আহত ছয় জন হলেন- সুজন ভূইয়া, শিপলু মিয়া, আব্দুল্লাহ আল মামুন, রিফাত আহমেদ, সৌরভ আহমেদ, শুভ।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

রূপগঞ্জে সাংবাদিক রাশেদের ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

আপডেট সময় : ০৭:২৪:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ জুন ২০২৪

রূপগঞ্জ প্রতিনিধি।।

দৈনিক মানবকন্ঠ পত্রিকার সাংবাদিকের জমি দখলের উদ্দেশ্যে সন্ত্রাসী হামলা সহ মিথ্যা কাল্পনিক ভিত্তিহীন নাটক সাজিয়ে  হয়রানির অভিযোগ উঠেছে।

 

সাংবাদিক রাশেদ প্রতিপক্ষের লোকজনের হামলার শিকার হয়ে তার সাথে অন্তত ৬ জনকে পিটিয়ে মারাত্মক জখম সহ আহত করা হয়েছেন।

এই ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার (১০ জুন) দুপুরে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের থানার পাশে সুষ্ঠু বিচর চেয়ে ভুক্তভোগী সাংবাদিক সহ এলাকার সুশীল সমাজের লোকজন এবং ভুক্তভোগীর পরিবার ও শতাধিক এলাকাবাসী মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করছে।

সুত্র মতে জানা গেছে, অভিযুক্ত জাকির, আফজাল ও সুখেন বাহিনীর লোকজনদের অনতিবিলম্বে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে শাস্তির দাবি করেন।প্রত্যক্ষদর্শীদের তথ্য মতে,  তারা সকলে রূপগঞ্জ ইউনিয়নের দক্ষিনবাগ এলাকার চিহ্নিত ভূমিদস্যু।

মানববন্ধনে মাথায় আঘাতে আহত সুজন ভূইয়া বলেন, গত বৃহস্পতিবার বিকেলে আমার মামাতো ভাই ও সাংবাদিক রাশেদুল ইসলাম রাশেদের জমি পরিমাপ করার সময় জাকির ও আফজাল গং এর সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে আমাদের ওপর চড়াও হয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। এতে আমার সাথে থাকা ৫ জন গুরুতর আহত হয়। আর আমাকে মেরে ফেলার উদ্দেশ্যে মাথায় কোপ দিয়ে আহত করেছে। এ ঘটনায় বেশ কিছু দিন অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলাম। এই ঘটনায় থানায় মামলা করতে গেলেও রহস্যজনক কারনে মামলা নিচ্ছেনা।উল্টো হামলাকারীরা আমাদের বিরুদ্ধে মামলা করার চেষ্টা চালাচ্ছেন। আমি এর সুষ্ঠু বিচার দাবি জানাচ্ছি।

জমির মালিক সমুল্য সরকার বলেন, এই জমির প্রকৃত মালিক আমি ও আমার ভাই অমুল্য সরকার। আমার কাছে থেকে ১৩ শতাংশ জমি সাংবাদিক রাশেদুল ইসলাম ক্রয় করে নিয়েছে। এখন এই জমি বুঝে নিতে পরিমাপ করতে গেলে তাদের ওপরে সন্ত্রাসী বাহিনী হামলা চালায়। আর ওই জমির পাশের জমির বাড়ি ঘরে কে বা কাহারা আগুন দিয়ে আমার ওপর মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাঁসানো চেষ্টা চালাচ্ছে। আমি এই ঘটনার সুষ্ঠু  বিচার চাই্।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ও প্রতিবেশী জোসনা বেগম বলেন, সন্ত্রাসীরা তাদের নিজেদের বাড়ি-ঘর জ্বালিয়ে মিথ্যা অভিযোগ তুলেছে।মামলা অন্য দিকে প্রবাহিত করতে মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগ করেছে।

দৈনিক মানবকণ্ঠ পত্রিকার পূর্বাচল ও ঢাকা প্রতিনিধি রাশেদুল ইসলাম রাশেদ বলেন, আমার ক্রয়কৃত জমি পরিমাপ করতে গেলে সন্ত্রাসীরা আমাদের ওপরও চড়াও হয়ে  হামলা চালিয়েছে। এ সময় একজনকে তারা হত্যা উদ্দেশ্যে কুপিয়ে আহত করেছে। এছাড়া এ ঘটনায় আরও ৫/৬ জন আহত হয়েছে। তারা জোর করে আমার ক্রয়কৃত জমি দখল নিতে চাচ্ছে। এজন্য তার আগুন দেওয়ার নাটক সাজিয়ে মিথ্যা বানোয়াট মনগড়া অভিযোগ তুলছে।

তিনি আরও বলেন, আমার জমিটি নিচু অংশে। অথচ যেই বাড়িতে আগুন লেগেছে সেটি অনেক উঁচু স্থানে। তাছাড়া আগুন দেওয়ার জায়গাটি আমার না, সেখানে আগুন দেওয়ার প্রশ্ন উঠেনা। এই আগুন দেওয়ার ঘটনা যে মিথ্যা নাটক তার ভিডিও আমার কাছে আছে।

আহত ছয় জন হলেন- সুজন ভূইয়া, শিপলু মিয়া, আব্দুল্লাহ আল মামুন, রিফাত আহমেদ, সৌরভ আহমেদ, শুভ।