ঢাকা ০২:২৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুলাউড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতিকে কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:৩১:৫৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২ জুন ২০২৪ ২৪ বার পড়া হয়েছে
তিমির বনিক,মৌলভীবাজার প্রতিনিধি।।
মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি নিয়াজুল তায়েফকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা।
শুক্রবার (৩১শে মে) রাত ৯টার দিকে উপজেলার কাদিপুর ইউনিয়নের পেকুর বাজারে এ ঘটনা ঘটে।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মাহফুজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
তায়েফের চাচাত ভাই অফিকুল ইসলাম হাদী জানান, রাত সাড়ে ৮টার দিকে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস কিনতে বাড়ি থেকে স্থানীয় পেকুর বাজারে যান তায়েফ। পরে বাড়ি ফেরার সময় একজন তার মোবাইলে ফোন দিয়ে পেকুর বাজারের পাশের একটি রাস্তায় যাওয়ার জন্য বলে। তায়েফ ওই জায়গায় যাওয়া মাত্রই ৫ থেকে ৭ জন দুর্বৃত্ত কোনোকিছু বুঝে ওঠার আগেই তায়েফকে লাঠিসোঁটা দিয়ে মারধর ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে মাথায় কুপিয়ে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠায়।
স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মাহফুজুর রহমান জানান, তায়েফের মাথায় আঘাতের ফলে রক্তক্ষরণ হয়েছে। প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।
শনিবার (১লা জুন) এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আলী মাহমুদের মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

কুলাউড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতিকে কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা

আপডেট সময় : ০৭:৩১:৫৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২ জুন ২০২৪
তিমির বনিক,মৌলভীবাজার প্রতিনিধি।।
মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি নিয়াজুল তায়েফকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়েছে দুর্বৃত্তরা।
শুক্রবার (৩১শে মে) রাত ৯টার দিকে উপজেলার কাদিপুর ইউনিয়নের পেকুর বাজারে এ ঘটনা ঘটে।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মাহফুজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
তায়েফের চাচাত ভাই অফিকুল ইসলাম হাদী জানান, রাত সাড়ে ৮টার দিকে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস কিনতে বাড়ি থেকে স্থানীয় পেকুর বাজারে যান তায়েফ। পরে বাড়ি ফেরার সময় একজন তার মোবাইলে ফোন দিয়ে পেকুর বাজারের পাশের একটি রাস্তায় যাওয়ার জন্য বলে। তায়েফ ওই জায়গায় যাওয়া মাত্রই ৫ থেকে ৭ জন দুর্বৃত্ত কোনোকিছু বুঝে ওঠার আগেই তায়েফকে লাঠিসোঁটা দিয়ে মারধর ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে মাথায় কুপিয়ে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠায়।
স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মাহফুজুর রহমান জানান, তায়েফের মাথায় আঘাতের ফলে রক্তক্ষরণ হয়েছে। প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।
শনিবার (১লা জুন) এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আলী মাহমুদের মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।