ঢাকা ০৩:৪৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রূপগঞ্জে জমি সংক্রান্ত বিরোধে শিক্ষক দম্পতিকে কুপিয়ে জখম

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০২:১১:৪৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪ ৩৪ বার পড়া হয়েছে
রাশেদুল ইসলাম,রূপগঞ্জ।।
নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার পিতলগঞ্জে জমি দখলে বাঁধা দেয়ায় এক শিক্ষক দম্পতিকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ পাওয়া উঠেছে।
এ সময় মা-বাবাকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে এইচএসসি শিক্ষার্থী তোয়া আক্তারকেও পিটিয়ে আহত করা হয়। এ ঘটনায় রূপগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করে।
বুধবার (২৪ এপ্রিল) সকালে অভিযোগ দায়ের কথা জানতে পেরে সন্ত্রাসীরা পুনরায় অস্ত্রেশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে শিক্ষক দম্পতির বাড়িতে সাড়াশি হামলা চালায়।
জানা গেছে, জমির বিরোধের জের ধরে গতকাল বুধবার সকালে উপজেলার পিতলগঞ্জ এলাকার আতাব উদ্দিন ভুঁইয়ার ছেলে সন্ত্রাসী আলমগীর হোসেন (৪০), তার স্ত্রী কবিতা আক্তার (৩৫), সন্ত্রাসী সাব্বির হোসেন (২৫)সহ অজ্ঞাত আরো ৪-৫জন হাজী রফিজউদ্দিন ভুঁইয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক কামরুজ্জামানের (৫৩) উপর হামলা চালায়। এ সময় সন্ত্রাসীরা লোহার রড, ছুরি ও হকিস্টিক নিয়ে আক্রমন করে। তখন কামরুজ্জামানের স্ত্রী ও হাজী রফিজউদ্দিন ভুঁইয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাথমিক শাখার শিক্ষিকা রোকেয়া বেগম (৪০) এগিয়ে গেলে তাকেও কুপিয়ে জখম করে। মা-বাবার আর্তচিৎকারে শিক্ষক দম্পতির মেয়ে এইচএসসি শিক্ষার্থী তোয়া আক্তার (১৮) এগিয়ে গেলে তাকেও রাস্তায় টানা হেচঁড়া ও মারধর করে।
হামলায় আহত শিক্ষক কামরুজ্জামান জানান, তিনি বাড়িতে পাকা ভবন নির্মাণ করছেন। তিন তলা ভবনের ছাদের রড কিনতে বাড়ি থেকে বের হলে পূর্ব বিরোধের জেরে সন্ত্রাসী আলমগীরসহ তার সহযোগিরা পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী তার উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় তাকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করে ফেলে রেখে যায়। পরে তারা দলবদ্ধ হয়ে বাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাট চালায়। এ ঘটনায় রূপগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করলে সন্ত্রাসীরা পুনরায় ঐ শিক্ষক পরিবারের বাড়িতে হামলা চালালেও আইন শৃঙ্খলার বাহিনীর কোনো সদস্য ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেনি।
এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা জানান, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তবে সন্ত্রাসীরা যে দলেরই হোক না কেনো কাউকে ছাড় দেয়া হবে না বলে আশ্বস্ত করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

রূপগঞ্জে জমি সংক্রান্ত বিরোধে শিক্ষক দম্পতিকে কুপিয়ে জখম

আপডেট সময় : ০২:১১:৪৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪
রাশেদুল ইসলাম,রূপগঞ্জ।।
নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার পিতলগঞ্জে জমি দখলে বাঁধা দেয়ায় এক শিক্ষক দম্পতিকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ পাওয়া উঠেছে।
এ সময় মা-বাবাকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে এইচএসসি শিক্ষার্থী তোয়া আক্তারকেও পিটিয়ে আহত করা হয়। এ ঘটনায় রূপগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করে।
বুধবার (২৪ এপ্রিল) সকালে অভিযোগ দায়ের কথা জানতে পেরে সন্ত্রাসীরা পুনরায় অস্ত্রেশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে শিক্ষক দম্পতির বাড়িতে সাড়াশি হামলা চালায়।
জানা গেছে, জমির বিরোধের জের ধরে গতকাল বুধবার সকালে উপজেলার পিতলগঞ্জ এলাকার আতাব উদ্দিন ভুঁইয়ার ছেলে সন্ত্রাসী আলমগীর হোসেন (৪০), তার স্ত্রী কবিতা আক্তার (৩৫), সন্ত্রাসী সাব্বির হোসেন (২৫)সহ অজ্ঞাত আরো ৪-৫জন হাজী রফিজউদ্দিন ভুঁইয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক কামরুজ্জামানের (৫৩) উপর হামলা চালায়। এ সময় সন্ত্রাসীরা লোহার রড, ছুরি ও হকিস্টিক নিয়ে আক্রমন করে। তখন কামরুজ্জামানের স্ত্রী ও হাজী রফিজউদ্দিন ভুঁইয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাথমিক শাখার শিক্ষিকা রোকেয়া বেগম (৪০) এগিয়ে গেলে তাকেও কুপিয়ে জখম করে। মা-বাবার আর্তচিৎকারে শিক্ষক দম্পতির মেয়ে এইচএসসি শিক্ষার্থী তোয়া আক্তার (১৮) এগিয়ে গেলে তাকেও রাস্তায় টানা হেচঁড়া ও মারধর করে।
হামলায় আহত শিক্ষক কামরুজ্জামান জানান, তিনি বাড়িতে পাকা ভবন নির্মাণ করছেন। তিন তলা ভবনের ছাদের রড কিনতে বাড়ি থেকে বের হলে পূর্ব বিরোধের জেরে সন্ত্রাসী আলমগীরসহ তার সহযোগিরা পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী তার উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় তাকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করে ফেলে রেখে যায়। পরে তারা দলবদ্ধ হয়ে বাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাট চালায়। এ ঘটনায় রূপগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করলে সন্ত্রাসীরা পুনরায় ঐ শিক্ষক পরিবারের বাড়িতে হামলা চালালেও আইন শৃঙ্খলার বাহিনীর কোনো সদস্য ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেনি।
এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা জানান, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তবে সন্ত্রাসীরা যে দলেরই হোক না কেনো কাউকে ছাড় দেয়া হবে না বলে আশ্বস্ত করেন।