ঢাকা ০১:৩৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গোপালগঞ্জে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের লেকে ডুবে ২ ছাত্রীর মৃত্যু

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:১৪:১২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১ অগাস্ট ২০২৩ ৫২ বার পড়া হয়েছে
গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি।।
গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হলের লেকের পানিতে ডুবে দুই ছাত্রীর অকাল মৃত্যু হয়েছে।
মঙ্গলবার(১ আগষ্ট)  দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। দুপুর ১টার দিকে তাদের উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।
হাসপাতালের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ইসমাইল হোসেন জানান, হাসপাতালে আনার পূর্বেই ওই দুই ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে।
খবর পেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. এ কিউ এম মাহবুব, কোষাধ্যক্ষ বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রফেসর ড. মোবারক হোসেন, সাবেক ভিসি প্রফেসর ড. শাহজাহান, রেজিস্টার মো. দলিলুর রহমান, শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. কামরুজ্জামানসহ অন্যান্য শিক্ষকরা হাসপাতালে ছুটে যান।
নিহত ছাত্রীরা হলেন- বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ বিজ্ঞান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী আনিয়া হিয়া ও একই বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী তাসপিয়া জাহান রিতু।
জানা গেছে, রিতুর বাড়ি বাগেরহাট জেলার ফকিরহাট উপজেলার বেতাগী ইউনিয়নের মাছকাটা গ্রামে। অপর ছাত্রী  হিয়া খুলনা শহরের বয়রা মধ্যপাড়া এলাকার এনজিও কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান মনিরের মেয়ে।
বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী আকাশ জানান, দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বৃষ্টির মধ্যে ওই দুই শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের লেকে উৎফুল্ল হয়ে গোসল করতে আসেন। এসময় লেকপাড়ে পা পিছলে পরে যায়, সাঁতার না জানা শিক্ষার্থী হিয়া পানির মধ্যে পড়ে যান। পরে অল্প সাঁতার জানা শিক্ষার্থী রিতু তাকে উদ্ধার করতে পানিতে ঝাঁপ দেয়। এসময় ওই দুইজনই লেকের পানিতে ডুবে যান। পরে আমি নিজেও তাদের উদ্ধার করতে গিয়ে ব্যর্থ হই। এরপর খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে দুপুর ১টার দিকে ওই দুজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দুজনকেই মৃত ঘোষণা করেন।
এ ঘটনায় হিয়া ও রিতুর সহপাঠীরা অভিযোগ করে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের অবহেলায় লেকপাড়ে অব্যবস্থাপনার কারণে আমাদের দুই শিক্ষার্থীর অকাল মৃত্যু হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পুকুরপাড়ে প্রটেকশনের ব্যবস্থা রাখলে এ ধরনের ঘটনা ঘটতো না। তাদের গাফিলতির কারণে এই ঘটনা ঘটেছে, তা তদন্ত করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে ব্যবস্থা নিতে হবে।
গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু শেখ রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. এ কিউ এম মাহবুব বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের লেকে শিক্ষার্থীদের গোসল করা সম্পূর্ণ  নিষেধ সত্বেও ওই দুই শিক্ষার্থী বৃষ্টির মধ্যে গোসল করতে গিয়ে পা পিছলে পড়ে মারা গিয়েছেন। ঘটনাটি অত্যন্ত মর্মান্তিক ও হৃদয় বিদারক। এছাড়া শিক্ষার্থীদের অভিযোগও খতিয়ে দেখা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

গোপালগঞ্জে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের লেকে ডুবে ২ ছাত্রীর মৃত্যু

আপডেট সময় : ০৬:১৪:১২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১ অগাস্ট ২০২৩
গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি।।
গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হলের লেকের পানিতে ডুবে দুই ছাত্রীর অকাল মৃত্যু হয়েছে।
মঙ্গলবার(১ আগষ্ট)  দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। দুপুর ১টার দিকে তাদের উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।
হাসপাতালের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ইসমাইল হোসেন জানান, হাসপাতালে আনার পূর্বেই ওই দুই ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে।
খবর পেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. এ কিউ এম মাহবুব, কোষাধ্যক্ষ বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রফেসর ড. মোবারক হোসেন, সাবেক ভিসি প্রফেসর ড. শাহজাহান, রেজিস্টার মো. দলিলুর রহমান, শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. কামরুজ্জামানসহ অন্যান্য শিক্ষকরা হাসপাতালে ছুটে যান।
নিহত ছাত্রীরা হলেন- বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ বিজ্ঞান ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী আনিয়া হিয়া ও একই বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী তাসপিয়া জাহান রিতু।
জানা গেছে, রিতুর বাড়ি বাগেরহাট জেলার ফকিরহাট উপজেলার বেতাগী ইউনিয়নের মাছকাটা গ্রামে। অপর ছাত্রী  হিয়া খুলনা শহরের বয়রা মধ্যপাড়া এলাকার এনজিও কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান মনিরের মেয়ে।
বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী আকাশ জানান, দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বৃষ্টির মধ্যে ওই দুই শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের লেকে উৎফুল্ল হয়ে গোসল করতে আসেন। এসময় লেকপাড়ে পা পিছলে পরে যায়, সাঁতার না জানা শিক্ষার্থী হিয়া পানির মধ্যে পড়ে যান। পরে অল্প সাঁতার জানা শিক্ষার্থী রিতু তাকে উদ্ধার করতে পানিতে ঝাঁপ দেয়। এসময় ওই দুইজনই লেকের পানিতে ডুবে যান। পরে আমি নিজেও তাদের উদ্ধার করতে গিয়ে ব্যর্থ হই। এরপর খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে দুপুর ১টার দিকে ওই দুজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দুজনকেই মৃত ঘোষণা করেন।
এ ঘটনায় হিয়া ও রিতুর সহপাঠীরা অভিযোগ করে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের অবহেলায় লেকপাড়ে অব্যবস্থাপনার কারণে আমাদের দুই শিক্ষার্থীর অকাল মৃত্যু হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পুকুরপাড়ে প্রটেকশনের ব্যবস্থা রাখলে এ ধরনের ঘটনা ঘটতো না। তাদের গাফিলতির কারণে এই ঘটনা ঘটেছে, তা তদন্ত করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে ব্যবস্থা নিতে হবে।
গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু শেখ রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. এ কিউ এম মাহবুব বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের লেকে শিক্ষার্থীদের গোসল করা সম্পূর্ণ  নিষেধ সত্বেও ওই দুই শিক্ষার্থী বৃষ্টির মধ্যে গোসল করতে গিয়ে পা পিছলে পড়ে মারা গিয়েছেন। ঘটনাটি অত্যন্ত মর্মান্তিক ও হৃদয় বিদারক। এছাড়া শিক্ষার্থীদের অভিযোগও খতিয়ে দেখা হবে।