ঢাকা ০৪:১৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লোডশেডিং আরও কিছু দিন চলবে : নসরুল হামিদ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:১৮:১২ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩ জুন ২০২৩ ৭৭ বার পড়া হয়েছে

অনলাইন ডেস্ক

 

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু বলেছেন, জ্বালানি সংকটের কারণে চলমান লোডশেডিং আরও কিছু দিন অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন তিনি ।

শনিবার (৩ জুন) সকালে সাভারে একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা জানান।

গণমাধ্যমকর্মীদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এখানে একটা বড় বিদ্যুৎ আমরা পাচ্ছি না সিস্টেমে। এই কারণে আমি মনে করি যে, কিছুটা জনদুর্ভোগ হচ্ছে। লোডশেডিং কিছুটা বেড়ে গেছে।’

জালানি ‘তেলের ব্যাপারেও আমরা হিমশিম খাচ্ছি। এখন ইন্ডাস্ট্রিতে ডাইভার্ট করছি বেশির ভাগ গ্যাস। তাপমাত্রা বেড়ে গেছে ৩৮ ডিগ্রির উপরে, কোনো কোনো জায়গায় ৪০/৪১ ডিগ্রি হয়ে গেছে। কয়েকটি পাওয়ার প্ল্যান্ট কাজ না করাতে লোডশেডিং বেড়েছে।আগামী  কিছুদিন এ পরিস্থিতি থাকবে।হিসেব অনুযায়ী প্রায় দেড় হাজার মেগাওয়াটের উপরে লোডশেডিং হচ্ছে।’
প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, ‘আমরা বিদ্যুতের পাওয়ার প্ল্যান্ট করলাম, চালু করব, বন্ধ হয়ে গেল কোভিডে। বসিয়ে বসিয়ে পয়সা খরচ করতে হয়েছে। আবার যখন ইউক্রেন যুদ্ধ লাগল,তখন যে তেলের দাম ছিল ৭০ ডলার,তা বেড়ে হয়ে গেল ১৪০ ডলারে।এ পরিস্থিতিতে আমরা হিমশিম খাচ্ছি।তবে দ্রুততম সময়ে পরিস্থিতি সাভাবিক অবস্থায় ফেরাতে কাজ চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

লোডশেডিং আরও কিছু দিন চলবে : নসরুল হামিদ

আপডেট সময় : ১২:১৮:১২ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩ জুন ২০২৩

অনলাইন ডেস্ক

 

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু বলেছেন, জ্বালানি সংকটের কারণে চলমান লোডশেডিং আরও কিছু দিন অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন তিনি ।

শনিবার (৩ জুন) সকালে সাভারে একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা জানান।

গণমাধ্যমকর্মীদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এখানে একটা বড় বিদ্যুৎ আমরা পাচ্ছি না সিস্টেমে। এই কারণে আমি মনে করি যে, কিছুটা জনদুর্ভোগ হচ্ছে। লোডশেডিং কিছুটা বেড়ে গেছে।’

জালানি ‘তেলের ব্যাপারেও আমরা হিমশিম খাচ্ছি। এখন ইন্ডাস্ট্রিতে ডাইভার্ট করছি বেশির ভাগ গ্যাস। তাপমাত্রা বেড়ে গেছে ৩৮ ডিগ্রির উপরে, কোনো কোনো জায়গায় ৪০/৪১ ডিগ্রি হয়ে গেছে। কয়েকটি পাওয়ার প্ল্যান্ট কাজ না করাতে লোডশেডিং বেড়েছে।আগামী  কিছুদিন এ পরিস্থিতি থাকবে।হিসেব অনুযায়ী প্রায় দেড় হাজার মেগাওয়াটের উপরে লোডশেডিং হচ্ছে।’
প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, ‘আমরা বিদ্যুতের পাওয়ার প্ল্যান্ট করলাম, চালু করব, বন্ধ হয়ে গেল কোভিডে। বসিয়ে বসিয়ে পয়সা খরচ করতে হয়েছে। আবার যখন ইউক্রেন যুদ্ধ লাগল,তখন যে তেলের দাম ছিল ৭০ ডলার,তা বেড়ে হয়ে গেল ১৪০ ডলারে।এ পরিস্থিতিতে আমরা হিমশিম খাচ্ছি।তবে দ্রুততম সময়ে পরিস্থিতি সাভাবিক অবস্থায় ফেরাতে কাজ চলছে।