ঢাকা ০১:৪৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ব্যাটারিচালিত রিকশা বন্ধের বিষয়ে কোনো ধরনের সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে না: প্রধানমন্ত্রী

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:১৪:২৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪ ১৭ বার পড়া হয়েছে

ছবি: পিআইডি

ব্যাটারিচালিত রিকশা বন্ধ না করে, চলাচলে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা

 

 

জীবিকা নির্বাহের কোন ধরনের ব্যবস্থা না করে ব্যাটারি চালিত রিকশা বন্ধের বিষয়ে কোনো ধরনের সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী  শেখ হাসিনা।

তিনি বিধিমালার মাধ্যমে বিষয়টি নিয়ন্ত্রণের (রেগুলেট) জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন এবং তা নির্দিধায় চলাচলের জন্য নির্দিষ্ট এলাকা ভাগ করে দিতে বলেছেন।

সোমবার (২০ মে) মন্ত্রিসভার বৈঠকে অনির্ধারিত আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী এসব বিষয়ে নির্দেশনা দেন। সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয় মন্ত্রিসভার এ বৈঠক। এরপরে বিকেলে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বৈঠকের সিদ্ধান্ত জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মাহবুব হোসেন।

১৫ মে সড়ক পরিবহন উপদেষ্টা পরিষদের প্রথম বৈঠকে সড়কে শৃঙ্খলা আনতে রাজধানীতে ব্যাটারিচালিত রিকশা চলাচল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এরপর ঢাকায় ব্যাটারিচালিত রিকশা বন্ধে অভিযানে নামে পুলিশ। ব্যাটারি চালিত রিকশা বন্ধের প্রতিবাদে রোববার(১৯ মে) রাজধানীর মিরপুরে দিনভর সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন ব্যাটারি চালিত রিকশা  চালকেরা।

এ বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ব্যাটারি চালিত রিকশা নিয়ে যে সকল ঘটনা ঘটেছে, সে বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীর নজরে আসে। তিনি স্পষ্টভাবেই নির্দেশনা দিয়েছেন, তাঁদের জীবিকার বিষয়টি উপেক্ষা করে কোনো ধরনের সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে না। তাঁদের জীবিকার বিষয়টি খুবই গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনায় রাখতে হবে। একটি বিধিমালা তৈরির মাধ্যমে এটি রেগুলেট করতে হবে এবং তাঁদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। তাঁদেরকে নির্দিষ্ট এলাকা ভাগ করে দিতে হবে। এর বাইরে তাঁরা যাবেন না। তবে কোনো অবস্থাতেই যেন মহাসড়ক বা বড় সড়কে না যান, সে বিষয়টি নিশ্চিত করা সহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সড়ক বিভাগ ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে নির্দেশনা দিয়েছেন।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, এটি (ব্যাটারিচালিত রিকশা বন্ধের সিদ্ধান্ত) প্রধানমন্ত্রী জানতেন না। তিনি বলেছেন তাঁর নজরে আনা হয়নি।এখন নজরে এসেছ , তাই তাদের জীবিকার ব্যবস্থা না করে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়াটা যৌক্তিক মনে করেননি প্রধানমন্ত্রী।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব আরও জানান, ব্যাটারি চালিত রিকশার যন্ত্রের সঙ্গে উপযুক্ত কাঠামো বা মডেল করার ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

ব্যাটারিচালিত রিকশা বন্ধের বিষয়ে কোনো ধরনের সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে না: প্রধানমন্ত্রী

আপডেট সময় : ০৭:১৪:২৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪

ছবি: পিআইডি

ব্যাটারিচালিত রিকশা বন্ধ না করে, চলাচলে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা

 

 

জীবিকা নির্বাহের কোন ধরনের ব্যবস্থা না করে ব্যাটারি চালিত রিকশা বন্ধের বিষয়ে কোনো ধরনের সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী  শেখ হাসিনা।

তিনি বিধিমালার মাধ্যমে বিষয়টি নিয়ন্ত্রণের (রেগুলেট) জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন এবং তা নির্দিধায় চলাচলের জন্য নির্দিষ্ট এলাকা ভাগ করে দিতে বলেছেন।

সোমবার (২০ মে) মন্ত্রিসভার বৈঠকে অনির্ধারিত আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী এসব বিষয়ে নির্দেশনা দেন। সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয় মন্ত্রিসভার এ বৈঠক। এরপরে বিকেলে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বৈঠকের সিদ্ধান্ত জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মাহবুব হোসেন।

১৫ মে সড়ক পরিবহন উপদেষ্টা পরিষদের প্রথম বৈঠকে সড়কে শৃঙ্খলা আনতে রাজধানীতে ব্যাটারিচালিত রিকশা চলাচল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এরপর ঢাকায় ব্যাটারিচালিত রিকশা বন্ধে অভিযানে নামে পুলিশ। ব্যাটারি চালিত রিকশা বন্ধের প্রতিবাদে রোববার(১৯ মে) রাজধানীর মিরপুরে দিনভর সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন ব্যাটারি চালিত রিকশা  চালকেরা।

এ বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ব্যাটারি চালিত রিকশা নিয়ে যে সকল ঘটনা ঘটেছে, সে বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীর নজরে আসে। তিনি স্পষ্টভাবেই নির্দেশনা দিয়েছেন, তাঁদের জীবিকার বিষয়টি উপেক্ষা করে কোনো ধরনের সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে না। তাঁদের জীবিকার বিষয়টি খুবই গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনায় রাখতে হবে। একটি বিধিমালা তৈরির মাধ্যমে এটি রেগুলেট করতে হবে এবং তাঁদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। তাঁদেরকে নির্দিষ্ট এলাকা ভাগ করে দিতে হবে। এর বাইরে তাঁরা যাবেন না। তবে কোনো অবস্থাতেই যেন মহাসড়ক বা বড় সড়কে না যান, সে বিষয়টি নিশ্চিত করা সহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সড়ক বিভাগ ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে নির্দেশনা দিয়েছেন।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, এটি (ব্যাটারিচালিত রিকশা বন্ধের সিদ্ধান্ত) প্রধানমন্ত্রী জানতেন না। তিনি বলেছেন তাঁর নজরে আনা হয়নি।এখন নজরে এসেছ , তাই তাদের জীবিকার ব্যবস্থা না করে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়াটা যৌক্তিক মনে করেননি প্রধানমন্ত্রী।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব আরও জানান, ব্যাটারি চালিত রিকশার যন্ত্রের সঙ্গে উপযুক্ত কাঠামো বা মডেল করার ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন প্রধানমন্ত্রী।