ঢাকা ০২:৩৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নারায়ণগঞ্জে অস্ত্র তৈরি কারখানার সন্ধান, ২টি রিভলবার সহ আটক ১

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:৫১:২৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ৭৪৩ বার পড়া হয়েছে
কবুতর ব্যবসার আড়ালে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির অস্ত্র তৈরি করতেন করিম..!
নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি।।
নারায়ণগঞ্জ শহরের প্রানকেন্দ্র পাইকপাড়া এলাকায় একটি বাড়িতে দেশীয় প্রযুক্তির অত্যাধনিক অস্ত্র তৈরির কারখানার সন্ধান পেয়েছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।
২১ ফেব্রুয়ারী (বুধবার)  বিকেলে জেলার গোয়েন্দা সংস্থা একটি চৌকস দল অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় নিজ হাতে তৈরি দুইটি আগ্নেয়াস্ত্র ও অস্ত্র তৈরির সরঞ্জামসহ আ: করিম নামের  একজনকে আটক করা হয়েছে।
পুলিশের তথ্য অনুযায়ী, আটক আব্দুল করিম (৫৯) পেশাদার একজন অস্ত্র ব্যবসায়ী। কবুতর ব্যবসার অন্তরালে দীর্ঘদিন ধরে তিনি নিজের হাতে অস্ত্র তৈরি করে বিভিন্ন স্থানে অর্ডার অনুযায়ী সর্বরাহ বা বিক্রি করে আসছেন।
করিমের পরিবারের সঙ্গে আলাপচারিতা জানা যায়, নারায়ণগঞ্জ শহরের নিতাইগঞ্জের নলুয়াপাড়া এলাকায় স্ত্রী ও দুই ছেলেকে নিয়ে ৯০ সাল থেকে ভাড়া বাসায় বসবাস করছেন লিবিয়াফেরত আব্দুল করিম। তখন থেকেই পাশের পাইকপাড়া এলাকায় শাহ সুজা রোডে নিজ বোনের টিনসেড বাড়িতে বৃদ্ধা মায়ের ঘরের পাশে আরেকটি ঘরে থাকতেন তিনি। মা ও পরিবার জানতেন আব্দুল করিম এই বাড়িতে কবুতর ও গমের ব্যবসা করেন। তবে স্ত্রী ও সন্তানদের ভরণ পোষণের খরচ না দেয়ায় পরিবারের কেউই এ বাড়িতে আসতেন না। তার সঙ্গে তেমন কোনো ধরনের যোগাযোগও ছিল না।
তবে জানা গেছে,  দিনের বেশিরভাগ সময় বোনের নিরিবিলি ওই বাড়িতেই সময় কাটাতেন আব্দুল করিম। তবে মাঝে মধ্যে ঘরের ভেতর মেশিন চালানোর বিকট শব্দ পাওয়া যেতো। এ শব্দের ব্যাপারে কেউ জিজ্ঞেস করলে আব্দুল করিম বলতেন কবুতর ও গমের ব্যবসা খারাপ হওয়ায় এখন নাট বল্টু তৈরি করে বিক্রি করেন।
আটক আঃ করিমের স্ত্রী মোকসেদা জানান, উনি আমাদের সবসময়ই বলতেন তার কবুতর ও গমের ব্যবসা ভালো যাচ্ছে না। এ জন্য কোনো ভরণপোষণও দেন না। তাই আমি বা আমার ছেলেরাও কেউই এই বড়িতে আসি না। এছাড়াও  উনি আর কী করতেন আমরা কিছুই জানতাম না। আজ এ ঘটনায় পুলিশ আসার খবর শুনে এই বাড়িতে ছুটে এসেছি। উনি যদি আইনবিরোধী কোনো কাজ করে থাকেন, তাহলে আইন অনুযায়ী তার শাস্তি হবে। এ ব্যাপারে আমার কিছু বলার নাই।
আটক আব্দুল করিমের বৃদ্ধা মা’ মাবিয়া বেগম একই কথা জানালেন, আমরা সবাই জানতাম আমার ছেলে করিম গমের ও কবুতরের ব্যবসা করে। মাঝে মধ্যে তার ঘরের ভেতরে মেশিনের শব্দ শুনে ওরে জিজ্ঞেস করছি কিসের শব্দ হয়। সে তখন বলছে গম, কবুতরের ব্যবসা নাই। এই জন্য নাট বল্টু বানিয়ে বিক্রি করে। এর বেশি আর কিছু জানি না। তবে আমার ছেলে যদি অস্ত্র বানাইয়া থাকলে অন্যায় কাজ করছে। এইটা আমি মাইনা নিতে পারমু না।
এলাকাবাসীর তথ্য মতে জানা গেছে,  আব্দুল করিমকে বেশ ভালো মানুষ হিসেবেই জানতেন তারা। কবুতর ব্যবসার আড়ালে তার অস্ত্র ব্যবসার বিষয়টি সবাইকে বিস্মিত করেছে।
বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) বিকেল সাড়ে পাঁচটায় ওই বাড়িতে অভিযান চালায় জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। এসময় অস্ত্র তৈরির সময় হাতেনাতে আটক করা হয় আব্দুল করিমকে। তার ঘরে তল্লাশি করে পাওয়া যায় দেশীয় দুইটি অস্ত্র ও অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম।
অভিযান শেষে জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) চাইলাউ মারমা জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত দুই মাস আগে পাইকপাড়ার ওই বাড়িতে দেশীয় তৈরি অস্ত্র বেচাকেনার তথ্য পায় জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। তখন থেকেই ওই বাড়ি ঘীরে পুলিশের গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত ছিল। অস্ত্রের বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারী) ওই বাড়িতে অভিযান চালিয়ে নিজ হাতে তৈরি দেশীয় অস্ত্র উদ্ধারসহ অস্ত্র তৈরির কারখানার সন্ধান পাওয়া যায়।
জেলা পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটক আব্দুল করিম অস্ত্র নিজের হাতে তৈরির কথা স্বীকার করেছেন। তিনি আমাদের জানিয়েছেন ক্রেতাদের অর্ডার ও চাহিদা অনুযায়ী দেশীয় প্রযুক্তির পিস্তল, রিভলবার ও ওয়ান শুটার গান এই কারখানায় তৈরি নিজ হাতে তৈরি করেই বিক্রি ও সর্বরাহ করেন। আটক আব্দুল করিমের অস্ত্র ব্যবসার সঙ্গে আরও কারা জড়িত আছে সে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে মামলাসহ আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

নারায়ণগঞ্জে অস্ত্র তৈরি কারখানার সন্ধান, ২টি রিভলবার সহ আটক ১

আপডেট সময় : ০৩:৫১:২৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
কবুতর ব্যবসার আড়ালে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির অস্ত্র তৈরি করতেন করিম..!
নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি।।
নারায়ণগঞ্জ শহরের প্রানকেন্দ্র পাইকপাড়া এলাকায় একটি বাড়িতে দেশীয় প্রযুক্তির অত্যাধনিক অস্ত্র তৈরির কারখানার সন্ধান পেয়েছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।
২১ ফেব্রুয়ারী (বুধবার)  বিকেলে জেলার গোয়েন্দা সংস্থা একটি চৌকস দল অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় নিজ হাতে তৈরি দুইটি আগ্নেয়াস্ত্র ও অস্ত্র তৈরির সরঞ্জামসহ আ: করিম নামের  একজনকে আটক করা হয়েছে।
পুলিশের তথ্য অনুযায়ী, আটক আব্দুল করিম (৫৯) পেশাদার একজন অস্ত্র ব্যবসায়ী। কবুতর ব্যবসার অন্তরালে দীর্ঘদিন ধরে তিনি নিজের হাতে অস্ত্র তৈরি করে বিভিন্ন স্থানে অর্ডার অনুযায়ী সর্বরাহ বা বিক্রি করে আসছেন।
করিমের পরিবারের সঙ্গে আলাপচারিতা জানা যায়, নারায়ণগঞ্জ শহরের নিতাইগঞ্জের নলুয়াপাড়া এলাকায় স্ত্রী ও দুই ছেলেকে নিয়ে ৯০ সাল থেকে ভাড়া বাসায় বসবাস করছেন লিবিয়াফেরত আব্দুল করিম। তখন থেকেই পাশের পাইকপাড়া এলাকায় শাহ সুজা রোডে নিজ বোনের টিনসেড বাড়িতে বৃদ্ধা মায়ের ঘরের পাশে আরেকটি ঘরে থাকতেন তিনি। মা ও পরিবার জানতেন আব্দুল করিম এই বাড়িতে কবুতর ও গমের ব্যবসা করেন। তবে স্ত্রী ও সন্তানদের ভরণ পোষণের খরচ না দেয়ায় পরিবারের কেউই এ বাড়িতে আসতেন না। তার সঙ্গে তেমন কোনো ধরনের যোগাযোগও ছিল না।
তবে জানা গেছে,  দিনের বেশিরভাগ সময় বোনের নিরিবিলি ওই বাড়িতেই সময় কাটাতেন আব্দুল করিম। তবে মাঝে মধ্যে ঘরের ভেতর মেশিন চালানোর বিকট শব্দ পাওয়া যেতো। এ শব্দের ব্যাপারে কেউ জিজ্ঞেস করলে আব্দুল করিম বলতেন কবুতর ও গমের ব্যবসা খারাপ হওয়ায় এখন নাট বল্টু তৈরি করে বিক্রি করেন।
আটক আঃ করিমের স্ত্রী মোকসেদা জানান, উনি আমাদের সবসময়ই বলতেন তার কবুতর ও গমের ব্যবসা ভালো যাচ্ছে না। এ জন্য কোনো ভরণপোষণও দেন না। তাই আমি বা আমার ছেলেরাও কেউই এই বড়িতে আসি না। এছাড়াও  উনি আর কী করতেন আমরা কিছুই জানতাম না। আজ এ ঘটনায় পুলিশ আসার খবর শুনে এই বাড়িতে ছুটে এসেছি। উনি যদি আইনবিরোধী কোনো কাজ করে থাকেন, তাহলে আইন অনুযায়ী তার শাস্তি হবে। এ ব্যাপারে আমার কিছু বলার নাই।
আটক আব্দুল করিমের বৃদ্ধা মা’ মাবিয়া বেগম একই কথা জানালেন, আমরা সবাই জানতাম আমার ছেলে করিম গমের ও কবুতরের ব্যবসা করে। মাঝে মধ্যে তার ঘরের ভেতরে মেশিনের শব্দ শুনে ওরে জিজ্ঞেস করছি কিসের শব্দ হয়। সে তখন বলছে গম, কবুতরের ব্যবসা নাই। এই জন্য নাট বল্টু বানিয়ে বিক্রি করে। এর বেশি আর কিছু জানি না। তবে আমার ছেলে যদি অস্ত্র বানাইয়া থাকলে অন্যায় কাজ করছে। এইটা আমি মাইনা নিতে পারমু না।
এলাকাবাসীর তথ্য মতে জানা গেছে,  আব্দুল করিমকে বেশ ভালো মানুষ হিসেবেই জানতেন তারা। কবুতর ব্যবসার আড়ালে তার অস্ত্র ব্যবসার বিষয়টি সবাইকে বিস্মিত করেছে।
বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) বিকেল সাড়ে পাঁচটায় ওই বাড়িতে অভিযান চালায় জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। এসময় অস্ত্র তৈরির সময় হাতেনাতে আটক করা হয় আব্দুল করিমকে। তার ঘরে তল্লাশি করে পাওয়া যায় দেশীয় দুইটি অস্ত্র ও অস্ত্র তৈরির সরঞ্জাম।
অভিযান শেষে জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) চাইলাউ মারমা জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত দুই মাস আগে পাইকপাড়ার ওই বাড়িতে দেশীয় তৈরি অস্ত্র বেচাকেনার তথ্য পায় জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। তখন থেকেই ওই বাড়ি ঘীরে পুলিশের গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত ছিল। অস্ত্রের বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারী) ওই বাড়িতে অভিযান চালিয়ে নিজ হাতে তৈরি দেশীয় অস্ত্র উদ্ধারসহ অস্ত্র তৈরির কারখানার সন্ধান পাওয়া যায়।
জেলা পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটক আব্দুল করিম অস্ত্র নিজের হাতে তৈরির কথা স্বীকার করেছেন। তিনি আমাদের জানিয়েছেন ক্রেতাদের অর্ডার ও চাহিদা অনুযায়ী দেশীয় প্রযুক্তির পিস্তল, রিভলবার ও ওয়ান শুটার গান এই কারখানায় তৈরি নিজ হাতে তৈরি করেই বিক্রি ও সর্বরাহ করেন। আটক আব্দুল করিমের অস্ত্র ব্যবসার সঙ্গে আরও কারা জড়িত আছে সে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে মামলাসহ আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।