ঢাকা ০৪:২৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মহাসমাবেশের ডাক দিয়েও সমাবেশস্থল শূন্য বিএনপির: হাছান মাহমুদ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:০৬:৩৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১ অগাস্ট ২০২৩ ৫৯ বার পড়া হয়েছে
রংপুর প্রতিনিধি।।
তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি বলেছেন, আওয়ামী লীগকে আউট করতে গিয়ে বিএনপি নিজেরাই বোল্ড আউট হয়ে গেছে । তারা রাজধানী ঢাকা অবরোধ করতে চেয়েছিল, পরে নিজেরাই পালিয়ে গেছে। কাল সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসভা করেছে। বড় সমাবেশের ডাক দিয়েও কোনো মানুষ পায়নি।
তাই তারা বড় মাঠে না গিয়ে নয়া পল্টনের সামনে জনসভা করতে ইচ্ছুক।
মঙ্গলবার(১আগষ্ট) বাংলাদেশ টেলিভিশন রংপুর উপ-কেন্দ্র পরিদর্শনে গিয়ে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
মন্ত্রী বলেন, বিএনপি গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত সরকারকে শক্তি প্রয়োগের মাধ্যমে ক্ষমতাচ্যুত করতে চেষ্টা চালাচ্ছে। গাড়ি পোড়াচ্ছে, মানুষ পোড়াচ্ছে, খুন করছে অরাজকতা সৃষ্টি চেষ্টা চালাচ্ছে। তাদের এক নেতা কানাডায় রাজনৈতিক আশ্রয় প্রার্থনা করলে বিএনপিকে সন্ত্রাসী সংগঠন আখ্যায়িত করে আদালত তার আবেদন খারিজ করে দেন। বিএনপির লজ্জা থাকা উচিত। পঞ্চমবারের মতো তাদের সন্ত্রাসী সংগঠন আখ্যা দিলো কানাডার একটি আদালত। বিশ্বের অন্য দেশেও বিএনপি রাজনৈতিক আশ্রয় প্রার্থনা করেছিল, সেখানেও তাদের সন্ত্রাসী দল হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, গত ১৫ বছরে বিএনপি নেতাদের আদর-আপ্যায়ন করা হয়নি এটা সত্য নয়। যখন তারা গ্রেপ্তার হয়েছে তাদের ডিভিশন দেওয়া হয়েছে। যতদূর সম্ভব কারাগারে তাদের ভালো রাখার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। সে সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এত শক্তিশালী ছিল না বলে জনগণ এ বিষয় জানত না। এটা আওয়ামী লীগের মহা শিষ্টাচার। তবে এই শিষ্টাচার বিএনপির মত দলের মধ্যে নেই। বিএনপি যখন ক্ষমতায় ছিল তারা নারী নেত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরীকে রাসেল স্কয়ারে টানাহেঁচড়া করেছে, শালীনতা হরন করেছে। সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নাসিমকে ছাড় দেয়নি লাঠিপেটা করেছে। তখন তাদের পুলিশ নির্বিচারে পিটিয়েছে, কোনো সেবাযত্ন করেনি।
তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী বলেন, রংপুরে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রীর সভাকে ঘিরে উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে। জনসভাস্থলের বাইরে কমপক্ষে আরও ১০ গুণ মানুষ উপস্থিত থাকবে। প্রধানমন্ত্রীর জননেত্রীর জনসভা জনসমুদ্রে রূপ নিবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

মহাসমাবেশের ডাক দিয়েও সমাবেশস্থল শূন্য বিএনপির: হাছান মাহমুদ

আপডেট সময় : ০৬:০৬:৩৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১ অগাস্ট ২০২৩
রংপুর প্রতিনিধি।।
তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি বলেছেন, আওয়ামী লীগকে আউট করতে গিয়ে বিএনপি নিজেরাই বোল্ড আউট হয়ে গেছে । তারা রাজধানী ঢাকা অবরোধ করতে চেয়েছিল, পরে নিজেরাই পালিয়ে গেছে। কাল সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসভা করেছে। বড় সমাবেশের ডাক দিয়েও কোনো মানুষ পায়নি।
তাই তারা বড় মাঠে না গিয়ে নয়া পল্টনের সামনে জনসভা করতে ইচ্ছুক।
মঙ্গলবার(১আগষ্ট) বাংলাদেশ টেলিভিশন রংপুর উপ-কেন্দ্র পরিদর্শনে গিয়ে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
মন্ত্রী বলেন, বিএনপি গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত সরকারকে শক্তি প্রয়োগের মাধ্যমে ক্ষমতাচ্যুত করতে চেষ্টা চালাচ্ছে। গাড়ি পোড়াচ্ছে, মানুষ পোড়াচ্ছে, খুন করছে অরাজকতা সৃষ্টি চেষ্টা চালাচ্ছে। তাদের এক নেতা কানাডায় রাজনৈতিক আশ্রয় প্রার্থনা করলে বিএনপিকে সন্ত্রাসী সংগঠন আখ্যায়িত করে আদালত তার আবেদন খারিজ করে দেন। বিএনপির লজ্জা থাকা উচিত। পঞ্চমবারের মতো তাদের সন্ত্রাসী সংগঠন আখ্যা দিলো কানাডার একটি আদালত। বিশ্বের অন্য দেশেও বিএনপি রাজনৈতিক আশ্রয় প্রার্থনা করেছিল, সেখানেও তাদের সন্ত্রাসী দল হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, গত ১৫ বছরে বিএনপি নেতাদের আদর-আপ্যায়ন করা হয়নি এটা সত্য নয়। যখন তারা গ্রেপ্তার হয়েছে তাদের ডিভিশন দেওয়া হয়েছে। যতদূর সম্ভব কারাগারে তাদের ভালো রাখার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। সে সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এত শক্তিশালী ছিল না বলে জনগণ এ বিষয় জানত না। এটা আওয়ামী লীগের মহা শিষ্টাচার। তবে এই শিষ্টাচার বিএনপির মত দলের মধ্যে নেই। বিএনপি যখন ক্ষমতায় ছিল তারা নারী নেত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরীকে রাসেল স্কয়ারে টানাহেঁচড়া করেছে, শালীনতা হরন করেছে। সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নাসিমকে ছাড় দেয়নি লাঠিপেটা করেছে। তখন তাদের পুলিশ নির্বিচারে পিটিয়েছে, কোনো সেবাযত্ন করেনি।
তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী বলেন, রংপুরে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রীর সভাকে ঘিরে উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে। জনসভাস্থলের বাইরে কমপক্ষে আরও ১০ গুণ মানুষ উপস্থিত থাকবে। প্রধানমন্ত্রীর জননেত্রীর জনসভা জনসমুদ্রে রূপ নিবে বলে আশা করা যাচ্ছে।