ঢাকা ০৩:৪৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দোয়ারাবাজারে মিথ্যা মামলা ও বঙ্গবন্ধুর ছবি ভাঙচুরের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:৩৫:০৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ জুন ২০২৩ ১০২ বার পড়া হয়েছে

দোয়ারাবাজার(সুনামগঞ্জ) সংবাদদাতা।।

সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে উপজেলার সুরমা ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের একাংশের মহব্বতপুর বাজারের কার্যালয়ে শফিকুল ইসলাম আর্মির ছোট ভাই চিহ্নিত ভারতীয় চোরা কারবারী মোঃ জাকির হোসেন জকির নিজেই জাতির পিতার ছবি ভাংচুর ও দলীয় ফেস্টুন ব্যানার ছিড়ে সুরমা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলকব ভাবে হয়রাণী করার প্রতিবাদে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার(১৯ জুন) বিকালে উপজেলার সুরমা ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে ইউপি সদস্যবৃন্দ, স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড কাউন্সিল নেতৃবৃন্দ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবৃন্দ ও সুরমা ইউনিয়নের সর্বস্থরের জনগণের আয়োজনে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ইউপি সদস্য হাছান আলী জানান,সুরমা ইউনিয়নের স্বনামধন্য চেয়ারম্যান জনাব মোঃ হারুন অর রশিদ মহোদয়ের বিরোদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চেয়ারম্যান এর ছবি ও নাম ব্যবহার করে মহব্বতপুর বাজারে আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে হামলা ও জাতির পিতার ছবি ভাংচুর সহ দলীয় ফেস্টুন ব্যানার ছেড়ার অবমাননা করায় বিভিন্ন ফেইসবুক আইডি থেকে অপপ্রচার ও মিথ্যা মামলা দেওয়ার চেষ্টা চালাচ্ছেন আওয়ামীলীগ নামধারী শফিকুল ইসলাম জফির ( আর্মি)। শফিকুল ইসলাম আর্মির ছোট ভাই চিহ্নিত ভারতীয় চোরা কারবারী মোঃ জাকির হোসেন জকির নিজেই জাতির পিতার ছবি ভাংচুর ও দলীয় ফেস্টুন ব্যানার ছিড়ে চেয়ারম্যানের বিরোদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করার চেষ্টা চালাচ্ছে । শুধু তাই নয় প্রতিনিয়ত শফিকুল ইসলাম আর্মির হয়রানির শিকার হচ্ছে এলাকার ত্যাগী আওয়ামীলীগ কর্মীরা ।

তিনি বলেন, এ ঘটনা  হাছন আলী (দুখু) বাদী হয়ে জাতির পিতার ছবি ভাংচুর ও দলীয় ফেস্টুন ব্যানার ছেড়াঁর অপরাধে দোয়ারাবাজার থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করার পরেও আমাদের মামলাটি এখনও পর্যন্ত এফ আই আর (রেকর্ড) করা হয়নি

আমরা চাই আমাদের অভিযোগের প্রধান আসামী জাকির হোসেন সহ সকল আসামীদের আইনের আওতায় এনে সঠিক তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের শাস্তি নিশ্চিত করার দাবী জানাই।

সুরমা ইউনিয়ন একটি শান্তিপূর্ণ ইউনিয়ন । এই শান্তিপূর্ণ ইউনিয়নের সুনাম নষ্ট করার জন্য একটি কুচক্রী মহল দীর্ঘদিন যাবৎ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। আমরা এসব অপকর্মের তীব্রনিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুর রহমান, আসক আলী, আব্দুর রহিম,আনজির আলী,বিশিষ্ট মুরুব্বি ও আ”লীগ নেতা আতর আলী,আইয়ুবুর রহমান, সিরাজুল ইসলাম, সামছুল ইসলাম,কারী আব্দুল কদ্দুস, আব্দুন নুর,ফাহাদ আলম,আব্দুল মতিন,আম্বর আলী, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড কাউন্সিলের সভাপতি শাহিন আলম, সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম,সহ সকাল ইউপি সদস্য।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

দোয়ারাবাজারে মিথ্যা মামলা ও বঙ্গবন্ধুর ছবি ভাঙচুরের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

আপডেট সময় : ০৩:৩৫:০৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ জুন ২০২৩

দোয়ারাবাজার(সুনামগঞ্জ) সংবাদদাতা।।

সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে উপজেলার সুরমা ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের একাংশের মহব্বতপুর বাজারের কার্যালয়ে শফিকুল ইসলাম আর্মির ছোট ভাই চিহ্নিত ভারতীয় চোরা কারবারী মোঃ জাকির হোসেন জকির নিজেই জাতির পিতার ছবি ভাংচুর ও দলীয় ফেস্টুন ব্যানার ছিড়ে সুরমা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলকব ভাবে হয়রাণী করার প্রতিবাদে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার(১৯ জুন) বিকালে উপজেলার সুরমা ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে ইউপি সদস্যবৃন্দ, স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড কাউন্সিল নেতৃবৃন্দ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবৃন্দ ও সুরমা ইউনিয়নের সর্বস্থরের জনগণের আয়োজনে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ইউপি সদস্য হাছান আলী জানান,সুরমা ইউনিয়নের স্বনামধন্য চেয়ারম্যান জনাব মোঃ হারুন অর রশিদ মহোদয়ের বিরোদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চেয়ারম্যান এর ছবি ও নাম ব্যবহার করে মহব্বতপুর বাজারে আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে হামলা ও জাতির পিতার ছবি ভাংচুর সহ দলীয় ফেস্টুন ব্যানার ছেড়ার অবমাননা করায় বিভিন্ন ফেইসবুক আইডি থেকে অপপ্রচার ও মিথ্যা মামলা দেওয়ার চেষ্টা চালাচ্ছেন আওয়ামীলীগ নামধারী শফিকুল ইসলাম জফির ( আর্মি)। শফিকুল ইসলাম আর্মির ছোট ভাই চিহ্নিত ভারতীয় চোরা কারবারী মোঃ জাকির হোসেন জকির নিজেই জাতির পিতার ছবি ভাংচুর ও দলীয় ফেস্টুন ব্যানার ছিড়ে চেয়ারম্যানের বিরোদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করার চেষ্টা চালাচ্ছে । শুধু তাই নয় প্রতিনিয়ত শফিকুল ইসলাম আর্মির হয়রানির শিকার হচ্ছে এলাকার ত্যাগী আওয়ামীলীগ কর্মীরা ।

তিনি বলেন, এ ঘটনা  হাছন আলী (দুখু) বাদী হয়ে জাতির পিতার ছবি ভাংচুর ও দলীয় ফেস্টুন ব্যানার ছেড়াঁর অপরাধে দোয়ারাবাজার থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করার পরেও আমাদের মামলাটি এখনও পর্যন্ত এফ আই আর (রেকর্ড) করা হয়নি

আমরা চাই আমাদের অভিযোগের প্রধান আসামী জাকির হোসেন সহ সকল আসামীদের আইনের আওতায় এনে সঠিক তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের শাস্তি নিশ্চিত করার দাবী জানাই।

সুরমা ইউনিয়ন একটি শান্তিপূর্ণ ইউনিয়ন । এই শান্তিপূর্ণ ইউনিয়নের সুনাম নষ্ট করার জন্য একটি কুচক্রী মহল দীর্ঘদিন যাবৎ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। আমরা এসব অপকর্মের তীব্রনিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুর রহমান, আসক আলী, আব্দুর রহিম,আনজির আলী,বিশিষ্ট মুরুব্বি ও আ”লীগ নেতা আতর আলী,আইয়ুবুর রহমান, সিরাজুল ইসলাম, সামছুল ইসলাম,কারী আব্দুল কদ্দুস, আব্দুন নুর,ফাহাদ আলম,আব্দুল মতিন,আম্বর আলী, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড কাউন্সিলের সভাপতি শাহিন আলম, সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম,সহ সকাল ইউপি সদস্য।