ঢাকা ১০:৫৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশের ব্যাটিং কোচ আর থাকছে না- সিডন্স

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:৫৭:৪৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ মে ২০২৩ ১৪৯ বার পড়া হয়েছে

অনলাইন ডেস্ক।।

২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে দ্বিতীয় দফায় ১১ বছর পর বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং কোচ হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছিলেন জেমি সিডন্স। কিন্তু দ্বিতীয় মেয়াদের দায়িত্বও বেশি দিন পালন করতে পারলেন না। গত কয়েক সিরিজ ধরেই ব্যাটিং কোচ হিসেবে তার ভূমিকা খুব একটা ছিল না। বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ব্যাটিং কোচের দায়িত্বে থাকছেন না আর অস্ট্রেলিয়ান জেমি সিডন্স। তবে, তিনি বাংলাদেশ ছাড়ছেন না। তাকে ভিন্ন দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। ‘এ’ দল এবং বাংলাদেশ টাইগার্সের হয়ে কাজ করবেন তিনি।

নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়েছেন সিডন্স। তার সঙ্গে আলাপ করেই এ সিদ্ধান্ত নিযেছে বিসিবি। তিনি জানিয়েছেন, জাতীয় দলের সঙ্গে আর কাজ করবেন না। আপাতত তরুণ ব্যাটসম্যানদের গড়ে তোলার কাজে মন দিতে চান এই অস্ট্রেলিয়ান।

গেল বছরের ফেব্রুয়ারিতে ২ বছরের চুক্তিতে বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং কোচ হিসেবে নিযুক্ত হন সিডন্স। সে সময় বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ ছিলেন রাসেল ডোমিঙ্গো। এখন দলের প্রধান কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। সিডন্স ২০০৭ সালের অক্টোবর থেকে ২০১১ বিশ্বকাপ পর্যন্ত বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের প্রধান কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে সিরিজ খেলতে বাংলাদেশ জাতীয় দল দুই ভাগে ইংল্যান্ডে গেলেও দলের সঙ্গে যাননি সিডন্স। সামাজিক মাধ্যমে সোমবার তিনি জানান, এখন থেকে শুধু জাতীয় দলের আশেপাশে থাকা ক্রিকেটারদের নিয়েই কাজ করবেন তিনি।

আজ নিজের ফেসবুক পেজে দেয়া এক স্ট্যাটাসে সিডন্স বলেন, ‘সংক্ষিপ্ত ছুটি কাটিয়ে ঢাকায় ফিরেছি। এখন থেকে আমি আর বাংলাদেশ জাতীয় দলের সঙ্গে কাজ করবো না। বিসিবির সাথে কথা বলেই তরুণ প্রজন্মের সাথে কাজ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

‘কারণ আমার মনে হয় বিসিবিকে আমি সেরাটা দিতে পারি পরবর্তী প্রজন্মের সঙ্গে কাজ করে, যেন জাতীয় দলের পাশেপাশে থাকা ক্রিকেটারদের দেখভাল ভালোভাবে করা এবং দেশের জন্য পরবর্তী সুযোগটা কাজে লাগানোর জন্য তাদের প্রতিটি দিন উন্নতি করা নিশ্চিত করা যায়। তরুণ ক্রিকেটারদের স্কিল নিয়ে কোচিং করানো আমি ভালোবাসি এবং বিসিবিও এটা চায়, এজন্যই এটা সম্ভব করতে পেরেছি।’

তিনি আরও লিখেছেন, ‘জাতীয় দলে কাজ করলে খ্যাতি বেশি এবং সেটিও আমি পছন্দ করি, কিন্তু স্কিল গড়ে তোলা, উন্নতি এবং অনুশীলন হয় নেটে এবং মিরপুরের নেটে প্রচণ্ড গরমে ঘাম ঝরিয়ে। ‘এ’ দল ও টাইগার্সের হয়ে ভবিষ্যতের ক্রিকেটারদের নিয়ে কাজ করতে মুখিয়ে আছি।’

একই সাথে আয়ারল্যান্ড সফরে যাওয়া বাংলাদেশ জাতীয় দলের জন্য শুভ কামনা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ খেলার জন্য ইংল্যান্ডে রওনা হওয়া ছেলেদের জন্য শুভ কামনা।’

গত বছর আগস্ট থেকেই মূলত জাতীয় দলের ব্যাটিং কোচের দায়িত্বে অনিয়মিত হয়ে পড়েন তিনি। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন তখন জানিয়েছিলেন, এখন থেকে জাতীয় দলের বাইরের ক্রিকেটারদের নিয়ে কাজ করবেন সিডন্স। এরপর তেমনটাই হয়ে আসছিলো প্রায়। জাতীয় দলের হয়ে কখনো কাজে লাগছেন, আবার কখনও লাগছিলেন না। এবার সিডন্স নিজেই ঘোষণা দিয়ে জানিয়ে দিলেন, তিনি কাদের নিয়ে কাজ করতে যাচ্ছেন।

সংগৃহীত..

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

বাংলাদেশের ব্যাটিং কোচ আর থাকছে না- সিডন্স

আপডেট সময় : ১২:৫৭:৪৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ মে ২০২৩

অনলাইন ডেস্ক।।

২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে দ্বিতীয় দফায় ১১ বছর পর বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং কোচ হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছিলেন জেমি সিডন্স। কিন্তু দ্বিতীয় মেয়াদের দায়িত্বও বেশি দিন পালন করতে পারলেন না। গত কয়েক সিরিজ ধরেই ব্যাটিং কোচ হিসেবে তার ভূমিকা খুব একটা ছিল না। বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ব্যাটিং কোচের দায়িত্বে থাকছেন না আর অস্ট্রেলিয়ান জেমি সিডন্স। তবে, তিনি বাংলাদেশ ছাড়ছেন না। তাকে ভিন্ন দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। ‘এ’ দল এবং বাংলাদেশ টাইগার্সের হয়ে কাজ করবেন তিনি।

নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়েছেন সিডন্স। তার সঙ্গে আলাপ করেই এ সিদ্ধান্ত নিযেছে বিসিবি। তিনি জানিয়েছেন, জাতীয় দলের সঙ্গে আর কাজ করবেন না। আপাতত তরুণ ব্যাটসম্যানদের গড়ে তোলার কাজে মন দিতে চান এই অস্ট্রেলিয়ান।

গেল বছরের ফেব্রুয়ারিতে ২ বছরের চুক্তিতে বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং কোচ হিসেবে নিযুক্ত হন সিডন্স। সে সময় বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ ছিলেন রাসেল ডোমিঙ্গো। এখন দলের প্রধান কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। সিডন্স ২০০৭ সালের অক্টোবর থেকে ২০১১ বিশ্বকাপ পর্যন্ত বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের প্রধান কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে সিরিজ খেলতে বাংলাদেশ জাতীয় দল দুই ভাগে ইংল্যান্ডে গেলেও দলের সঙ্গে যাননি সিডন্স। সামাজিক মাধ্যমে সোমবার তিনি জানান, এখন থেকে শুধু জাতীয় দলের আশেপাশে থাকা ক্রিকেটারদের নিয়েই কাজ করবেন তিনি।

আজ নিজের ফেসবুক পেজে দেয়া এক স্ট্যাটাসে সিডন্স বলেন, ‘সংক্ষিপ্ত ছুটি কাটিয়ে ঢাকায় ফিরেছি। এখন থেকে আমি আর বাংলাদেশ জাতীয় দলের সঙ্গে কাজ করবো না। বিসিবির সাথে কথা বলেই তরুণ প্রজন্মের সাথে কাজ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

‘কারণ আমার মনে হয় বিসিবিকে আমি সেরাটা দিতে পারি পরবর্তী প্রজন্মের সঙ্গে কাজ করে, যেন জাতীয় দলের পাশেপাশে থাকা ক্রিকেটারদের দেখভাল ভালোভাবে করা এবং দেশের জন্য পরবর্তী সুযোগটা কাজে লাগানোর জন্য তাদের প্রতিটি দিন উন্নতি করা নিশ্চিত করা যায়। তরুণ ক্রিকেটারদের স্কিল নিয়ে কোচিং করানো আমি ভালোবাসি এবং বিসিবিও এটা চায়, এজন্যই এটা সম্ভব করতে পেরেছি।’

তিনি আরও লিখেছেন, ‘জাতীয় দলে কাজ করলে খ্যাতি বেশি এবং সেটিও আমি পছন্দ করি, কিন্তু স্কিল গড়ে তোলা, উন্নতি এবং অনুশীলন হয় নেটে এবং মিরপুরের নেটে প্রচণ্ড গরমে ঘাম ঝরিয়ে। ‘এ’ দল ও টাইগার্সের হয়ে ভবিষ্যতের ক্রিকেটারদের নিয়ে কাজ করতে মুখিয়ে আছি।’

একই সাথে আয়ারল্যান্ড সফরে যাওয়া বাংলাদেশ জাতীয় দলের জন্য শুভ কামনা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ খেলার জন্য ইংল্যান্ডে রওনা হওয়া ছেলেদের জন্য শুভ কামনা।’

গত বছর আগস্ট থেকেই মূলত জাতীয় দলের ব্যাটিং কোচের দায়িত্বে অনিয়মিত হয়ে পড়েন তিনি। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন তখন জানিয়েছিলেন, এখন থেকে জাতীয় দলের বাইরের ক্রিকেটারদের নিয়ে কাজ করবেন সিডন্স। এরপর তেমনটাই হয়ে আসছিলো প্রায়। জাতীয় দলের হয়ে কখনো কাজে লাগছেন, আবার কখনও লাগছিলেন না। এবার সিডন্স নিজেই ঘোষণা দিয়ে জানিয়ে দিলেন, তিনি কাদের নিয়ে কাজ করতে যাচ্ছেন।

সংগৃহীত..